এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > মুকুল রায়কে বিঁধতে গিয়ে এবার নেতাজিকেই ‘অপমান’ করে বসলেন শিক্ষামন্ত্রী

মুকুল রায়কে বিঁধতে গিয়ে এবার নেতাজিকেই ‘অপমান’ করে বসলেন শিক্ষামন্ত্রী

মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেস ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর তাঁকে ‘কাছা খুলে’ আক্রমনের দায়িত্ত্বতা শাসকদলের তরফে একই নিজের কাঁধে নিয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব তথা রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কখনো কাঁচরাপাড়ার কাঁচা ছেলে, কখনো বুড়ো ভাম, কখনো বা চাটনি বাবু বিশেষনে ভূষিত করেছেন তিনি মুকুল রায়কে। আর পোড়খাওয়া রাজনীতিবিদ মুকুল রায় জবাবে পার্থবাবুকে শুধু বাচ্ছা ছেলে বলে কটাক্ষ করে গেছেন। সেইকথা শুনে পার্থ বাবুও আরো বেশি করে আক্রমন করে গেছেন মুকুল রায়কে।
কিন্তু কয়েকদিন আগে কৃষ্ণনগরে দলীয় কর্মীসভায় গিয়ে মুকুল রায়কে আক্রমন করতে গিয়ে পার্থ বাবু নেতাজিকে টেনে আনেন, আর সেখানে তিনি যে শব্দবন্ধ তুলে ধরেন তার পরিপ্রেক্ষিতে রাজনীতিতে শালীনতা বোধ নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেন বিরোধীরা। পার্থবাবু মন্তব্য করেন, স্বয়ং নেতাজি কংগ্রেস ছেড়ে বেড়িয়ে গিয়েও কিছু করতে পারেননি, আর উনি (মুকুল রায়) কোন ‘পেঁয়াজি’? বিরোধীদের দাবি এই ধরনের শব্দ ব্যবহার করে পার্থবাবু আসলে স্বয়ং নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকেই অপমান করে বসলেন। বিশেষ করে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী হয়েও এই ধরনের ভাষা প্রয়োগ করায় নেতাজি-অনুরাগীরা প্রবলভাবে নিজেদের ক্ষোভ জানিয়েছেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!