এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > তৃনমূলে যোগ বিজেপি নেতাদের, তবুও কিভাবে ‘জোর করে’ আটকাচ্ছে বিজেপি ফাঁস করলেন পার্থ চ্যাটার্জী

তৃনমূলে যোগ বিজেপি নেতাদের, তবুও কিভাবে ‘জোর করে’ আটকাচ্ছে বিজেপি ফাঁস করলেন পার্থ চ্যাটার্জী

কিছুদিন আগেই জঙ্গলমহলের লালগড়ে একটি বাস দুর্ঘটনায় সাতজন মারা যাওয়ায় তাঁদের পরিবারের লোককে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার মুখ্যমন্ত্রীল দেওয়া সেই প্রতাশ্রুতিকে রক্ষা করতে এদিন 9 জনের হাতে গ্রুপ ডি পদে শিক্ষা দপ্তরের চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। আর এরপরই লোধাশুলীর পথসাথীতে ঝাড়গ্রামের জেলা তৃনমূলের কোর কমিটির বৈঠকে উপস্থিত হন শিক্ষামন্ত্রী।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

সেখানেই বিজেপির পাঁচজন মন্ডল সভাপতি সহ জেলার কিছু নেতা মিলিয়ে মোট 60 জন কর্মীসমর্থক তৃনমূলে যোগদান করেন। এমনকী বিজেপির দখলে থাকা কাঁকো গ্রাম পঞ্চায়েতের একজন বিজেপির ও পাঁচজন নির্দল সদস্য এদিন তৃনমূলে যোগ দেওয়ায় এই পঞ্চায়েতও শাসকদলের দখলে চলে যায়। পরে সাংবাদিক বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর উন্নয়নে সামিল হতে অনেকে তৃনমূলে আসছেন। আর বিজেপি ভয় দেখিয়ে তাঁদের ঝাড়খন্ডে নিয়ে গিয়ে আটকে রাখছে।”

এইভাবে চলতে থাকলে দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যাবস্থা যে রাজ্যের পুলিশ প্রশাসন নেবে সে ব্যাপারেও বিজেপিকে কড়া বার্তা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এদিন রাজ্যে বিজেপি সভাপতি আসা এবং অসমে তৃনমূলের প্রতিনিধিদের হেনস্থা প্রসঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “বাঘ এলে লোকের ঘুম উঠে যায়, কিন্তু বিড়াল এলে কি ঘুম ছোটে? অসমে আমাদের প্রতিনিধিকে পুলিশ আটকাবে কেন? এই ঘটনার তীব্র আপত্তি জানাচ্ছি।” রাজনৈতিক মহলের মতে, লোকসভা ভোট যতই এগিয়ে আসছে ততই উত্তেজনার পারদ চড়ছে তৃনমূল বিজেপির মধ্যে। আর তাই এবার সেই বিজেপিকে চাপে রেখে জঙ্গলমহলের হারানো সংগঠন মজবুতের চেষ্টায় তৃনমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!