এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েতে ‘শাসক সন্ত্রাসের’ প্রতিরোধে বিজেপির দেখানো পথেই বামফ্রন্ট

পঞ্চায়েতে ‘শাসক সন্ত্রাসের’ প্রতিরোধে বিজেপির দেখানো পথেই বামফ্রন্ট

পঞ্চায়েতে ‘শাসক সন্ত্রাসের’ প্রতিরোধে বিজেপির দেখানো পথেই বামফ্রন্ট।কয়েকদিন আগেই বিজেপি নেতা মুকুল রায় কমিশনের দফতরের বাইরে ধর্নায় বসেছিলেন এবার তাঁর দেখানো পথেই হটাতে চলেছে সিপিআইএম। শুক্র ও শনিবার আসন্ন ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে একাধিক বিচ্ছিন্ন ঘটনার প্রতিবাদে এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের দাবিতে রাজ্যের ১৭টি বাম দল রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দপ্তরের সামনে ধরনায় বসছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

গতকালই বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু এই কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেন। এদিন বিমান বাবু শাসক দলের শক্তির বিরুদ্ধে মোকাবিলা করার জন্যে বিরোধী দলগুলির ঐক্যবদ্ধ হওয়ার বিষয়ে আভাস দিলেন। যদিও এর আগেই বুধবার আলিমুদ্দিনে সাংবাদিক সম্মেলনে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র শাসকদলের বিরুদ্ধে বিরোধীদের জোট বেঁধে ঐক্য স্থাপনের মাধ্যমে প্রতিরোধের ইঙ্গিত করেছিলেন। এদিন ফরওয়ার্ড ব্লক দলের রাজ্য সম্পাদক নরেন চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে দলীয় কর্মীদের নিয়ে একটি প্রতিনিধি দল রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে দেখা করেন। এবং নরেন বাবু এদিন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতির বিচারে কমিশনারের পদত্যাগ দাবি করলেন। এদিন রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের সাথে দেখা করতে গেলে পুলিশের দ্বারা বাধা প্রাপ্ত হয় বলে অভিযোগ ফরওয়ার্ড ব্লক নেতৃত্বের। তারা আরোও দাবি করলেন রাজ্যে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যে হানাহানির ঘটনা বিচ্ছিন্নভাবে ঘটে চলেছে তা দমন করতে পুলিশ ও প্রশাসনকে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এবং সর্বোপরী তিন দফায় নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটগ্রহণ পর্বের দিন ধার্য হওয়া ১ লা মে , আর্ন্তজাতিক শ্রমিক দিবস হওয়ার কারণে ঐদিনের নির্বাচন স্থগিত রাখতে হবে। এদিন বিমান বাবু নির্বাচনের মনোনয়নপত্র পেশ করাকে কেন্দ্র করে রাজ্যজুড়ে বাম কর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনার উল্লেখ করে সরব হলেন। এদিন তিনি অত্যন্ত বিরক্তির সাথে জেলায় জেলায় বাম কর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার পরিসংখ্যান দিয়ে বললেন,”পঞ্চায়েত ভোটের দিন সংঘর্ষ হয়। কিন্তু মনোনয়ন জমা দিতে গেলে বোমা মারব, গুলি করব, এরকম পরিস্থিতি রাজ্যে কখনও কোনও ভোটে হয়নি, এটা নজিরবিহীন।নলহাটিতে প্রাক্তন সাংসদ রামচন্দ্র ডোমকে ইট ছুড়ে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়েছে। সিপিএম রাজ্য কমিটির সদস্য গৌতম ঘোষের পায়ে আঘাত লেগেছে। সোনামুখিতে সিপিএম বিধায়ক অজিত রায়ের উপরও হামলা চালানো হয়েছে”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!