এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > দলনেত্রীর নির্দেশকে বুড়ো আঙুল! খোদ পঞ্চায়েত প্রধানকে মারধর করে অফিস দখল বিরোধী গোষ্ঠীর

দলনেত্রীর নির্দেশকে বুড়ো আঙুল! খোদ পঞ্চায়েত প্রধানকে মারধর করে অফিস দখল বিরোধী গোষ্ঠীর

গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে বারবার বিরোধীদের তোপের মুখে পড়তে হচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসকে।যার ফলে ক্ষিপ্ত দলনেত্রী নির্দেশ দিয়েছিলেন দলের অভ্যন্তরে কোন এখন গোষ্ঠী কোন্দল তিনি বরদাস্ত করবেন না। কিন্তু, এত কিছুর পরেও সেই দ্বন্দ্ব বন্ধ হচ্ছে না।

রবিবার পাঁচলা মিল বাজারে পাঁচলা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান মুজিবর রহমানকে মারধর করে দলীয় অফিস থেকে বার করে অফিস দখল নেওয়ার অভিযোগ উঠল শাসক তৈরি বিরোধী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে। জখম পঞ্চায়েত প্রধান বর্তমানে উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।এই ঘটনা থেকে আবারো প্রমাণ হলো জলের নিচে তালায় কর্মীরা মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মানতে নারাজ।

সূত্রের খবর, পাঁচলায় তৃণমুলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব আজকের নয়। বহুদিন থেকে চলা এই অভ্যন্তরীণ কোন্দল পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর চড়া-পাঁচলা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চরমে ওঠে। অভিযোগ, রবিবার বিরুদ্ধ গোষ্ঠীর লোকজন দলীয় কার্যালয়ে ঢুকতে গেলে তাঁদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করে মজিবর ও তার গোষ্ঠীর লোকজন। তারপরই মুজিবর রহমানকে পাল্টা মারধরের অভিযোগ ওঠে অপর গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে।
এদিন হাসপাতালে মুজিবর রহমানের স্ত্রী অভিযোগ করে বলেন, “রবিবার বিরুদ্ধ গোষ্ঠীর লোকজন কিছু সমাজবিরোধীকে সঙ্গে নিয়ে লোহার রড, লাঠি দিয়ে স্বামীকে মারধর করে জোর করে অফিস থেকে বার করে অফিসের দখল নেয়।” যদিও মুজিবরের স্ত্রীর এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভাবে অস্বীকার করেছেন স্থানীয় বিধায়ক গুলশন মল্লিক। তিনি উল্টে বলেছেন, “অঞ্চল অফিসে ব্রিগেডের মিটিং নিয়ে বৈঠক হচ্ছিল। সেখানে কথা কাটাকাটি হয়েছে। এর বেশি কিছু হয়নি।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে, জেলা তৃণমূলের সভাপতি তথা রাজ্যের সমবায়মন্ত্রী অরূপ রায় বলেছেন,” বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে দেখছি।”পরপর এইসব ঘটনা বারবার সামনে আনছে তৃণমূলের অভ্যন্তরীণ কঙ্কালসার চেহারাটাকে। আর যার ফলে স্বভাবতই ভোটের মুখে চাপে পড়তে হচ্ছে শাসক দলকে।

আপনার মতামত জানান -
Top