এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পঞ্চায়েত সদস্যের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগে সরব তৃণমূলেরই একাংশ

পঞ্চায়েত সদস্যের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগে সরব তৃণমূলেরই একাংশ

রাজ্যে বহু আইনী জটিলতার পরে পঞ্চায়েত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরপরেই জানাজানি হলো রাজ্যের শাসক দলের মধ্যেকার দলীয় কোন্দল। হুগলির শ্রীরামপুরের পিয়ারাপুরের গ্রাম পঞ্চায়েত এক সদস্যের রিরুদ্ধে ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করে স্থানীয় অঞ্চলে রীতিমতো লুঠতরাজের অভিযোগ আনলো তৃণমূল কংগ্রেস দলেরই বাকি সদস্যেরা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্যের নাম নিমাই মণ্ডল। একই সাথে পুলিশের বেশ কিছু কর্মীর বিরুদ্ধে জনৈক অভিযুক্ত কে প্রশ্রয় দেওয়ার ও অভিযোগ উঠেছে। এদিন পিয়ারাপুর ফাঁড়িতে অঞ্চল সভাপতি সুদর্শন বরের নেতৃত্বে নিমাই মণ্ডলের গ্রেপ্তারি ও ফাঁড়ির ইনচার্জকে অপসারনের দাবিতে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের অবস্থান বিক্ষোভ। অল্প সময়ের মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে। অভিযোগ উঠেছে সংশ্লিষ্ট এলাকার কারখানাগুলি থেকে জোর করে টাকা তুলতো অভিযুক্ত দলীয় কর্মী নিমাই মণ্ডল। পাশাপাশি দলীয় কর্মীদের শারীরিক হেনস্থার করা ও অভিযোগ উঠেছে। এসব ঘটনার কথা পুলিশকে জানালো হলেও পুলিশের ভূমিকা নিস্ক্রিয় ছিলো বলে দলের স্থানীয় কর্মীদের থেকে জানা গেছে। সেই কারণে ফাঁড়ি ইনচার্জের অপসারনের দাবি ওঠে। যদিও তাঁর বিরুদ্ধে আনা দলের বাকি কর্মী সমর্থকদের সমস্ত অভিযোগ কার্যত ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়ে তিনি পালটা অভিযোগ এনে বললেন,“সুদর্শন বরই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত। দলের বিরুদ্ধে গিয়ে নির্দলে প্রার্থী দাঁড় করিয়ে টাকা তুলেছে। এখন আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে প্রচার করে আমাকে সরাতে চাইছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top