এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ত্রিশঙ্কু পঞ্চায়েতের দখল নিতে দলবদল করিয়ে বিরোধীশূন্য করা শুরু শাসকদলের

ত্রিশঙ্কু পঞ্চায়েতের দখল নিতে দলবদল করিয়ে বিরোধীশূন্য করা শুরু শাসকদলের

রাজ্যের পঞ্চায়েতে সব আসনে তৃনমূলের জয়জয়কার হলেও কিছু আসন বিরোধীদের দখলে যাওয়ায় রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন,” সব আসনই বিরোধীশূন্য করে সেখানে ঘাসফূল ফোটাতেই হবে।” এবার নেতৃত্বের সেই কথাকে মান্যতা দিয়ে উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদিঘি ব্লকের ত্রিশঙ্কু গ্রাম পঞ্চায়েতগুলি নিজেদের দখলে রাখতে মাঠে নেমে পড়ল সেখানকার জেলা তৃনমূল নেতৃত্ব। সূত্রের খবর, এই জেলার আলতাপুর-1 পঞ্চায়েতের বিরোধী সভদলের 10 জন সদস্যকেই গত বুধবার শাসক শিবিরে যোগদান করানো হয়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

তাঁদের হাতে তৃনমূলের দলীয় পতাকা তুলে দেন এলাকার বিধায়ক মনোদেব সিংহ। জানা গেছে,  এই পঞ্চায়েতটি প্রথমে ত্রিশঙ্কু অবস্থায় থাকলেও পরে এই দলবদলের জেরে তা শাসকদল তৃনমূলের ঝুলিতে আসে। তবে শুধু এই পঞ্চায়েতই নয়, বাকি ত্রিশঙ্কু অবস্থায় থাকা জেলার পঞ্চায়েতগুলি দখলেও ঝাপাচ্ছে শাসক শিবির। এদিকে এই পঞ্চায়েত দখল প্রসঙ্গে করনদিঘির তৃনমূল বিধায়ক মনোদেব সিংহ বলেন, ” মুখ্যমন্ত্রীর উন্নয়নের সাথী হতেই বিরোধী দলের সদস্যরা একে একে তৃনমূলে যোগদান করছেন।” দলের জেলার পর্যবেক্ষক যেভাবে বলেছেন তাঁরা দলের সৈনিক হিসিবে যে সেই পথেই এগোচ্ছেন তা স্পষ্ট করেছেন তৃনমূলের স্থানীয় পঞ্চায়েত সমিতির নবনির্বাচিত সদস্য শ্যামুয়েল মার্ডি।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

অন্যদিকে এই দলবদল প্রসঙ্গে বিরোধী বিজেপির জেলা সভাপতি নির্মল দাম ও সিপিএমের করনদিঘি এরিয়া কমিটির সম্পাদক আশিস ঘোষ বলেন,” তৃনমূল ভয় ও প্রলোভোন দেখিয়ে বিরোধী সদস্যকে বলপূর্বক নিজেদের দলে টানতে শুরু করেছে। তবে গনতন্ত্রে এ জিনিস চলতে দেওয়া যেতে পারে না।” করনদিঘির 15 আসনবিশিষ্ট আলতাপুর-1 পঞ্চায়েতে তৃনমূল 5 টি,  বিজেপি 2 টি, সিপিএম 2টি, ফব 4 টি, নির্দল 2 টি আসন পায়। এদিন সবাই তৃনমূলে যোগদান করায় কার্যত বিরোধীশূন্য হয়ে পড়ে এই পঞ্চায়েত। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, জেলার তৃনমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর কথা পরোতে পরোতে মেনে চলে বিরোধী দলের সদস্যদের নিজেদের দলে টেনে পঞ্চায়েতগুলিতে অস্তিত্ব জাহির করতে শুরু করেছে শাসকদল। তৃনমূল কংগ্রেস

 

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!