এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দখলে আসছে একের পর এক পঞ্চায়েত, শাসকদলের বিজয় মিছিল শুরু

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দখলে আসছে একের পর এক পঞ্চায়েত, শাসকদলের বিজয় মিছিল শুরু

আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভের তালিকায় এ যাবৎকালের মধ্যে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস যে শীর্ষস্থান দখল করেছে তা আলাদা করে বলার দাবি রাখেনা। রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলার পরে এবার বাঁকুড়া জেলার ওন্দা রতনপুরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভের জন্যে শনিবার বিজয় মিছিল বের করলো শাসকদলের কর্মী ও সমর্থকরা। এদিন বিনা বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়ের খবর প্রকাশ্যে আসতেই হাজারের ও বেশি কর্মী সমর্থক বিকেলের দিকে সবুজ আবীর মেখে বিজয় মিছিল বের করে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

মিছিল রতনপুর গ্রাম ও বাজারে ঘোরে। উল্লেখ্য ওন্দার রতনপুর গ্রামপঞ্চায়েতের মোট আসন সংখ্যা ১৫টি। এরমধ্যে একটিতে আগেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করে শাসকদল। বাকি ১৪টিতে বিজেপি প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। কিন্তু হঠাৎই বিজেপি প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বীতায় অসম্মত হলেও ওন্দা গ্রামপঞ্চায়েতের ১৫টি আসনই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভ করে তৃণমূল কংগ্রেস। শুধু গ্রামপঞ্চায়েতই নয়, পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলা পরিষদেও শাসক দলের নিরঙ্কুশ ভাবে জয়লাভের সম্ভবনা প্রবল। এ প্রসঙ্গে ঐ এলাকার স্থানীয় তৃণমূল নেতা ভবতারণ চক্রবর্তী বললেন, ”বিরোধীদের পায়ের তলায় মাটি নেই। তাই তারা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়েছে। বাঁকুড়া জেলার মধ্যে রতনপুর গ্রামপঞ্চায়েত এক নম্বরে আছে। আগামী দিনেও এক নম্বরেই থাকবে।” অবশ্য বিজেপির বাঁকুড়া জেলা সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্র জানালেন ,” শুধু রতনপুর নয়, গোটা জেলাতেই আমাদের কর্মী, প্রার্থী, সমর্থকরা আক্রান্ত। শাসকদলের গুণ্ডাবাহিনী হামলা করছে। সেই ভয়ে আমাদের লোকজন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য হচ্ছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!