এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নিজেকে পাকিস্তানি বলে বিস্ফোরক দাবি তুললেন রাজ্যের সাংসদ, জোর শোরগোল!

নিজেকে পাকিস্তানি বলে বিস্ফোরক দাবি তুললেন রাজ্যের সাংসদ, জোর শোরগোল!

সংশোধনী আইন নিয়ে বর্তমানে উত্তপ্ত রাজ্য তথা জাতীয় রাজনীতি। ইতিমধ্যেই সেই আইন বাতিলের দাবিতে ভারতীয় জনতা পার্টির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে সেভাবে কংগ্রেসকে এতদিন প্রতিবাদ, প্রতিরোধ করতে দেখা যাচ্ছিল না। কিন্তু এবার এই আইনের বিরুদ্ধে মুখ খুলে সোরগোল তুলে দিলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, এদিন উত্তর 24 পরগনা বসিরহাটের একটি সভায় গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, “ভারত নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহের পৈত্রিক সম্পত্তি নয়। কোনোভাবেই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনকে সমর্থন করবে না কংগ্রেস। হ্যাঁ, আমি পাকিস্তানি। বিজেপি যা করার করে নিক।” আর লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতার এহেন মন্তব্যে এখন তৈরি হয়েছে শোরগোল পরিস্থিতি।

এদিন কেন্দ্রের এই আইনের বিরুদ্ধে মন্তব্য করতে গিয়ে রাজ্যপালকেও কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, “রাজ্যপাল মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন। অর্জুনের বাণে যদি পরমাণু থাকে, তাহলে তাই নিয়ে এত গবেষণার কি ছিল! তা থাকলে পশ্চিমবঙ্গ এতদিনে পাঁচটি নোবেল পেয়ে যেত।” অন্যদিকে এদিনের এই সভা থেকে পুলওয়ামা হামলার পেছনে কার হাত রয়েছে, তা নিয়ে ফের আরও একবার তদন্তের দাবি করেন অধীর চৌধুরী।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যেভাবে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতা করে অধীর চৌধুরী বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন এবং বিজেপিকে কটাক্ষ করলেন, তাতে জাতীয় রাজনীতিতে এবার ঝড় উঠতে পারে। তবে গোটা পরিস্থিতি এখন কোথায় গিয়ে মোড় নেয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -
Top