এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > কাশ্মীর নিয়ে কড়া সিদ্ধান্তের পরে কি ভয়ে কাঁপছে পাকিস্তান? জল্পনা বাড়াল পাক বিদেশমন্ত্রক

কাশ্মীর নিয়ে কড়া সিদ্ধান্তের পরে কি ভয়ে কাঁপছে পাকিস্তান? জল্পনা বাড়াল পাক বিদেশমন্ত্রক

যার বিয়ে তার খোঁজ নেই, পাড়া-পড়শির ঘুম নেই! ব্যাপারটা যেন অনেকটা সেরকমই! দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা ৩৭০ ধারা অবলুপ্ত করল ভারত আর বিবৃতি দিচ্ছে পাকিস্তান! ভরতীয় সংবিধানের কোন ধারা ভারত মেনে চলবে, পরিবর্তন বা পরিমার্জন করবে – তা সম্পূর্ণ ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার। কিন্তু তাই নিয়েই এবার ‘আক্রমণাত্মক’ বিবৃতি পাক বিদেশ মন্ত্রকের!

পাক বিদেশমন্ত্রী মেহবুদ কুরেশি বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, ৩৫-এ ধারার অবলুপ্তির ফলে ভারতের তথাকথিত গণতান্ত্রের আসল রূপ বিশ্বের সামনে প্রকাশিত হল। কাশ্মীরের নেতৃত্ব ভারতের এই সিন্ধান্তকে কোনও ভাবেই মেনে নিতে পারবে না। এই সিদ্ধান্ত কাশ্মীর সমস্যাকে পুনরুজ্জীবিত করবে। আর তাঁর এই মন্তব্যের পরেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে – ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার নিয়ে তাঁর বা তাঁর দেশের এত মাথাব্যথা কেন?

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

সংশ্লিষ্ট মহলের বক্তব্য, আসলে ভারত এতদিন যে দাবি জানিয়ে এসেছে, তা পাকিস্তান যতই অস্বীকার করুক, তা আসলে সত্যি। অর্থাৎ সরল-সাধাসিধে কাশ্মীরিদের দিয়ে সীমান্তের ওপর থেকে এতদিন ভুল বুঝিয়ে সন্ত্রাসে মদত দেওয়া হয়েছে। এতে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিপদ যেমন বেড়েছে, তেমনই বড় হয়ে দেখা দিয়েছিল অশান্তির আবহ।

কিন্তু, ৩৭০ ধারা অবলুপ্ত করে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহরা কিন্তু স্পষ্ট বার্তা দিলেন – আর চুপ করে বসে থাকার দিন শেষ। প্রয়োজনে সন্ত্রাসবাদ দমনে পাকিস্তানকে পাকিস্তানের ভাষাতেই জবাব দেওয়া হবে। আর সেই, আগ্রাসনের ছবিটা স্পষ্ট হয়ে যেতেই কার্যত ভয়ে কাঁপছে পাকিস্তান। আর তাই তো, এতদিনের সাধের লালিত কাশ্মীর নিয়ে এতবড় পদক্ষেপ হয়ে যেতেই আর নিজেদের রাগ সামাল দিতে পারছে না তারা।

Top
error: Content is protected !!