এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > পাকিস্তান ভারতেই থাকত যদি জিন্নাকে প্রধানমন্ত্রী হতে দিতেন নেহরু – সামনে এল বিস্ফোরক দাবি

পাকিস্তান ভারতেই থাকত যদি জিন্নাকে প্রধানমন্ত্রী হতে দিতেন নেহরু – সামনে এল বিস্ফোরক দাবি

দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী  জওহরলাল নেহরুর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য বৌদ্ধ ধর্মগুরু দলাই লামার। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য বুধবার ‌গোয়ার ইন্সস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্টের একটি সভায় অংশ গ্রহণ করতে উপস্থিত হয়েছিলেন এই ধর্মগুরু। সেখান থেকেই প্রকাশ্যে তিনি দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বললেন, ভারত এখন অবিভক্তই থাকতো যদি জওহরলাল নেহরু দেশের প্রধানমন্ত্রীর পদ মহম্মদ আলি জিন্নাকে ছেড়ে দিতেন। এদিন জওহরলাল নেহরুকে ক্ষমতালোভী বলেও অ্যাখ্যায়িত করলেন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

এদিনের অনুষ্ঠানে দলাই লামা পরিষ্কার ভাষায় বললেন, মহাত্মা গান্ধী চেয়েছিলেন মহম্মদ আলি জিন্নাকে প্রধানমন্ত্রী করতে। কিন্তু জওহর লাল নেহরু তাতে অখুশি হন এবং এই সিদ্ধান্ত কার্যকরী হওয়ার ক্ষেত্রে বাধা দেন। নেহেরুকে অত্যন্ত আত্মকেন্দ্রিক বলেও দাবি করলেন তিনি। তাঁর মতে সেইসময়ে যদি জিন্নাকে প্রধানমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দেওয়া হত তাহলে ঐতিহাসিক এই দেশ বিভাগের কোনো প্রয়োজনই হতোনা। ধর্মগুরুর এহেন বিবৃতিতে স্বভাবতই রাজনৈতিক মহলে হইচই শুরু হয়েছে।

জানা গিয়েছে এদিনের অনুষ্ঠানে এক ছাত্র দলাই লামাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে কোনো সিদ্ধান্ত ভুল হচ্ছে কিনা সেটা কী করে বোঝা যাবে। সেই প্রশ্নের জবাবেই তিনি নেহেরুর সিদ্ধান্তের উদাহরণ দেন। এদিকে কেন্দ্রে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পরে  দলাই লামা অসমের বিতর্কিত এলাকা তাওয়াংয়ে সফর করেছেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চীনের সঙ্গে প্রবল মতবিরোধ তৈরী হয়েছিলো ভারতের। ঐ অঞ্চলের দালাই লামার সফরের অনুমতি পাওয়ার প্রসঙ্গে অসম্মতি জানিয়েছিল চীন। রাজনৈতিক মহলের মতে কেন্দ্রে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই এই ধর্মগুরুর আকষ্মিক গুরুত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এই অনুষ্ঠাণে দালাই লামার এই মন্তব্য তারই প্রতিফলন বলে মনে করছেন তারা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!