এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > সমতলে ভোট মিটতেই এবার পাহাড়ের নির্বাচনের দামামা বেজে গেলো,সিদ্ধান্ত এই মাসেই

সমতলে ভোট মিটতেই এবার পাহাড়ের নির্বাচনের দামামা বেজে গেলো,সিদ্ধান্ত এই মাসেই

পঞ্চায়েত ভোট মিটতেই পাহাড় ভোটপর্ব শুরু করতে উদ্যোগী হয়ে উঠল। জানা যাচ্ছে এই মাসেরই শেষে পাহাড়ের ১৫ টি সম্প্রদায়ের বোর্ড একত্রিত হয়ে একটা অনুষ্ঠান করবে। সেখানে আসার জন্য আমন্ত্রণ করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। তিনি আসলে তখনই তাঁর কাছে ভোট করানোর ব্যাপারে সমবেত প্রয়াসে আর্জি জানাতে ইচ্ছুক জিএনএলএফ,মোর্চা,অখিল ভারতীয় গোর্খা লিগ। জুন থেকেই শুরু হয়ে যায় পাহাড়ে বৃষ্টির মরশুম। সেটা বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে আগস্ট অব্দি ভোট করানোর ব্যাপারে। তাই খুব তড়িঘড়ি করে পুজোর আগে দেড় থেকে দু মাসের ভিতরই ভোট করাতে চাইছেন পাহাড়কর্তারা।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

পাহাড়ের রাজনৈতিক শিবির দাবী থেকে জানা যাচ্ছে যে, ৬ মাসের মেয়াদ মাত্র জিটিএ-র তত্ত্বাবধারক  পরিষদের। বিনয় তমাংকে গুরুত্ব দিয়েই গত সেপ্টেম্বরে গঠিত হয়েছিল এ পরিষদ। পরে প্রয়োজনে তা আরো ৬ মাসের জন্য বাড়ানো হয়েছে। অতীতেও একবার ২ বছর ধরে সুবাস ঘিসিংকে প্রশাসক করে রেখছিল বামফ্রন্ট। কিন্তু এই মেয়াদ বৃদ্ধিতে ঘোর আপত্তি জানিয়েছিলেন বিনয় তমাং। এবার তিনি চান পাহাড় ভোট হোক খুব জলদি কারণ একই কারণে তাঁর দিকেও যেন কেউ অভিযোগের আঙুল না তোলে। তাছাড় পাহাড়-সন্ত্রাস বিমল গুরুং এখন ওখানে নেই। এখনই সবথেকে উৎকৃষ্ট সময় ভোট পর্ব সারার। কারণ এসময় ভোট সারলে গুরুংরা পাহাড়ে ঝামেলা তৈরি করতে পারবে না। তাই এদিন দিল্লি সফর বাতিল করে পাহাড়ে ফিরে ভোট পর্বের স্বপক্ষে কথা বললেন  বিনয় তমাং। তিনি জানান, পাহাড়ে শান্তি ও গণতন্ত্রের হাত ধরে ফিরেছে উন্নয়ন। তাই আশা করা যায়, নির্বাচন কমিশন সবদিক খতিয়ে দেখে পাহাড়ে ভোট করানো পক্ষেই রায় দেবেন। তাই এদিন পাহাড় কর্তারা জোটবদ্ধভাবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর কাছে ভোট করানোর জন্য আবেদন করবেন। এমনটাই রাজনৈতিক সূত্রের খবর থেকে জানা গেছে।

Top
error: Content is protected !!