এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > এনআরএস কান্ড নিয়ে মুখ খুলেন রাজ্যের হেভিওয়েট নেতা, মন্ত্রীরা -জেনে নিন

এনআরএস কান্ড নিয়ে মুখ খুলেন রাজ্যের হেভিওয়েট নেতা, মন্ত্রীরা -জেনে নিন

সাধারণ মানুষের কথা ভেবে আন্দোলন থেকে সরে এসে চিকিৎসা পরিষেবা চালু করতে জুনিয়র ডাক্তারদের কাছে অনুরোধ জানালেন বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ। রোগীদের প্রতি মানবিক হয়ে আন্দোলন প্রত‍্যাহার করে নেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে গতকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ‍ট্টোপাধ‍্যায়।

বিজেপি নেতা মুকুল রায় সাংবাদিকদের জানান যে রাজ‍্যের স্বাস্হ‍্যব‍্যবস্থার অচলাবস্থার দায়ভার নিয়ে এই মুহূর্তে মমতা ব‍্যানার্জীর স্বাস্হ‍্যমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসবে পদত‍্যাগ করা উচিত।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর মতে নিজের অন‍্যায় ইগোর জন‍্য মুখ‍্যমন্ত্রী এই অচলাবস্থার সৃষ্টি করেছে। এখনো ডাক্তারদের সঙ্গে না বসে উনি জায়গায় জায়গায় উস্কানিমূলক বক্তৃতা দিয়ে বেড়াচ্ছেন।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে উনি সম্পূর্ণ ব‍্যর্থ। সুজন চক্রবর্তী এটাও জানান যে রাজ‍্যে যে পরিস্থিতি মমতা ব‍্যানার্জী তৈরি করেছেন রাজ‍্যের মানুষ ওনাকে লাল কার্ড দেখানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীও এন আর এস কাণ্ডের জন‍্য রাজ‍্য প্রশাসনকে দায়ী করেন ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপের দাবি জানান। তিনি বলেন সরকারি চিকিৎসা পরিষেবা বন্ধ করিয়ে মমতা ব‍্যানার্জী সাধারণ মানুষকে বেসরকারি চিকিৎসা গ্রহণে বাধ‍্য করছেন। আর অসহায় গরীব মানুষরা প্রাণে বেঁচে থাকতে চেয়ে নিজের সবকিছু বিক্রি করে সহায় সম্বলহীন হয়ে পরছেন। সব দায় মুখ‍্যমন্ত্রীর।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!