এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নাগরিকত্ব সংশোধনী স্বপক্ষে প্রচারে বিজেপির নয়া কর্মসূচি, দরজায় দরজায় বাবুল!

নাগরিকত্ব সংশোধনী স্বপক্ষে প্রচারে বিজেপির নয়া কর্মসূচি, দরজায় দরজায় বাবুল!



 

সম্প্রতি নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন সংসদে পাশ হয়ে যাওয়ার পরে রাষ্ট্রপতির সীলমোহর পড়ে গিয়েছে তাতে। যার ফলে সেই আইন সারাদেশে লাগু হয়ে গিয়েছে। এদিকে এই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকেই তার বিরোধিতায় সরব হয়েছে দেশের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো।

বাংলার শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস ইতিমধ্যেই এই আইন বাতিলের দাবিতে রাস্তায় নেমে গর্জে উঠতে শুরু করেছে। দক্ষিণবঙ্গ থেকে উত্তরবঙ্গে মিছিল করে “নো ক্যাব, নো এনআরসি” স্লোগান তুলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর বিরোধীদের এই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে লাগাতার প্রচারের ফলে এই আইন লাগু করা দেশের শাসক দল বিজেপি কিছুটা হলেও ব্যাকফুটে পড়ে গিয়েছিল। যার জেরে কিভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে বিরোধীদের এই প্রচারকে দমিয়ে দেওয়া যায়, তার জন্য চেষ্টা শুরু করেছিল গেরুয়া শিবির।

অবশেষে এই ব্যাপারে বিরোধীদের মাস্টারস্ট্রোক দিকে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে দেখা গেল ভারতীয় জনতা পার্টিকে। বস্তুত, বাংলায় এই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বাতিলের দাবিতে তৃণমূল কংগ্রেস যেভাবে রাস্তায় নেমেছে, তার পাল্টা এবার রাস্তায় নামতে চলেছে বিজেপি। যেখানে তৃণমূল এই আইনের বিরুদ্ধে মত পোষণ করে সাধারণ মানুষের জনাদেশ তাদের দিকে নিতে চাইলেও, বিজেপি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে দিয়ে মানুষের দরজায় দরজায় নিজেদের মত উপস্থাপিত করতে প্রচেষ্টা চালাবে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

সূত্রের খবর, বিজেপি এই কর্মসূচির নাম দিয়েছে জনসম্পর্ক অভিযান। যেখানে প্রায় সারা দেশজুড়েই নাগরিকত্ব আইনের স্বপক্ষে জনমত গড়ে তুলতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের সাধারণ মানুষের বাড়ি বাড়ি নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছে তারা। সেদিক থেকে বাংলায় বিজেপির জনসম্পর্ক অভিযানের দায়িত্বে রয়েছেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। যার জেরে বিজেপি বাবুল সুপ্রিয়র মাধ্যমে সাধারণ মানুষের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে গিয়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন স্বপক্ষে মানুষের কাছে তাদের মতামত তুলে ধরবে।

পাশাপাশি সাধারণ মানুষ যাতে বিরোধীদের প্রচারে বিভ্রান্ত না হন, তার জন্যও প্রচেষ্টা চালাবে গেরুয়া শিবিরের নেতাকর্মীরা। বিশেষজ্ঞরা একাংশ বলছেন, বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেস এই ইস্যুতে বিজেপিকে চরম বিপাকে ফেলে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বাংলাকে পাখির চোখ করা বিজেপি যদি এখন তৃণমূলের প্রচারকে দমাতে না পারে, তাহলে তাদের পক্ষে ভবিষ্যৎ অত্যন্ত কঠিন হতে পারে।

আর তাই তো বাংলার সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে এই জনসম্পর্ক অভিযানের দায়িত্ব দিয়ে তৃণমূলকে চাপে রাখার পদ্ধতি অবলম্বন করতে চাইছে ভারতীয় জনতা পার্টি বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের। তবে বিজেপি তৃণমূলের নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতার প্রচারকে দমাতে কতটা সক্ষম হয়, সেদিকেই নজর থাকবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!