এখন পড়ছেন
হোম > আন্তর্জাতিক > নতুন বছরের শুরুতেই জনপ্রিয় অ্যাপ হোয়াটস্‌অ্যাপ বেশ কিছু নতুন ফিচার যোগ করল

নতুন বছরের শুরুতেই জনপ্রিয় অ্যাপ হোয়াটস্‌অ্যাপ বেশ কিছু নতুন ফিচার যোগ করল

হোয়াটসঅ্যাপ একটি জনপ্রিয়তম যোগাযোগের সোশ্যাল মাধ্যম। ফেসবুকের মত হোয়াটসঅ্যাপও মার্ক জুকারবার্গের সৃষ্টি। নতুন বছর পড়ার পর থেকে জনপ্রিয় অ্যাপ হোয়াটস অ্যাপ বেশ কিছু নতুন ফিচার নিয়ে এসেছে। তার মধ্যে অনেকগুলি অবশ্য এখনও পরীক্ষামূলক স্তরে রয়েছে। ইতিমধ্যে বেশ কিছু ফিচার হোয়াটসঅ্যাপের সাথে এড হয়ে জনসাধারণের কাছে পৌঁছে গেছে। তবে সেগুলির মধ্যে কোনগুলি জনপ্রিয় হচ্ছে বা কোনগুলি মানুষের পছন্দের তালিকা থেকে বাদ যাচ্ছে তা সম্পর্কে জানতে গেলে আরেকটু বিস্তারিত আলোচনা দরকার।

গত বছরের মতো এ বছরেও একগুচ্ছ ফিচার যোগ হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপে। হোয়াটসঅ্যাপ একটি জনপ্রিয়তম মেসেজিং অ্যাপ। প্রতিযোগিতার বাজারে এই চ্যাটিং অ্যাপটি যাতে কোনো মতেই পিছিয়ে না পড়ে তার জন্য সদাসতর্ক হোয়াটসঅ্যাপ। এবারেও নতুন বছরের শুরুতেই তারা বেশ কিছু ফিচার হোয়াটসঅ্যাপে অ্যাড করেছে। তবে টেক গুরুদের মতে নতুন অ্যাপ ফিচারের মধ্যে বেশ কিছু খামতি আছে। সবথেকে বড় খামতি হলো ইউজাররা একদমই পছন্দ করেন না যেখানে সেখানে বিজ্ঞাপন চালু হয়ে যাওয়া। কিন্তু এবার হোয়াটসঅ্যাপ সেই বিজ্ঞাপনকেই নিয়ে এসেছে তাঁদের অ্যাপে।

এবার হোয়াটসঅ্যাপ স্ট্যাটাস দেখতে গেলে দেখতে হবে প্রথমে বিজ্ঞাপন। ইতিমধ্যে ফেসবুকেও এই বিজ্ঞাপন চালু হয়ে গেছে। একইভাবে ফেসবুকের দোসর হোয়াটসঅ্যাপেও বিজ্ঞাপন জুড়ে দেওয়া হল। হোয়াটসঅ্যাপ স্ট্যাটাসে ছবি, ভিডিও, ফাইল কিছু আপলোড করলেই তার সাথে দেখা যাবে একটি বিজ্ঞাপন। যদিও সেখানে বিজ্ঞাপনদাতা এবং বিজ্ঞাপনটির একটি ঝলক দেখা যাবে। পুরো বিজ্ঞাপনটি দেখতে গেলে অন্য পেজে পৌঁছাতে হবে। অনেকটা ইনস্টাগ্রাম স্টাইলে এখানে বিজ্ঞাপন যোগ করা হয়েছে।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি আরেকটি নতুন ফিচার যোগ হতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপে এবং তা হল ডিলিট মেসেজ অপশন। এতদিন যেটা হতো তা হল, ব্যক্তিগতভাবে কোন চ্যাট মুছতে গেলে ডিলিট ফর এভরিওয়ান করলে মুছে যেত এবং কেউ সেটি দেখতে পেত না। এবার থেকে গ্রুপ এডমিন এর হাতে থাকবে বিশেষ ক্ষমতা। যেখানে যে কোন মেসেজ যদি গ্রুপে আসে তাহলে এডমিন সেটি ডিলিট করে দিতে পারে। যদিও ইউজার ডিলিট ফর এভরিওয়ান যদি করে, তাহলে উলটো দিকের ব্যক্তিটি বুঝতে পারবেন যে মেসেজটি ডিলিট করা হয়েছে। কিন্তু এডমিনের হাতে যে ক্ষমতা আসছে, তাতে কেউই বুঝতে পারবে না কোন মেসেজ ডিলিট হল।

নতুন এই ফিচারটি অর্থাৎ ডিলিট মেসেজ অপশনটি হোয়াটসঅ্যাপ এর সঙ্গে যুক্ত হলে সেটিকে অন বা অফ করে রাখা যাবে। এরপর যদি মেসেজ ডিলিট করতে চাওয়া হয় তাহলে একটা নির্দিষ্ট সময়ে অর্থাৎ 1 ঘন্টা বা 1 দিন বা এক সপ্তাহ বা এক মাস বা এক বছরের অপশন বেছে নিতে হবে। এরপর যে অপশনটি ইউজার পছন্দ করলেন ডিলিট করার জন্য, সেই সময় থেকে নিজে থেকেই মেসেজ ডিলিট হতে শুরু করবে। এবং এর কোনো ব্যাকআপ থাকবে না। তবে সূত্রের খবর, হোয়াটসঅ্যাপে বিজ্ঞাপনের অপশন আসার থেকে ডিলিট অপশন আসাতে ইউজাররা অনেক বেশি খুশি হয়েছে।

সম্প্রতি বিটা ভার্সন নিজে থেকে মেসেজ ডিলিট করার ফিচার যোগ করেছিল হোয়াটসঅ্যাপ শুরুতেই। এন্ড্রয়েড ফোনে এই অপশন ছিল। এবার নতুন ফিচার এসে গেল হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ক্লিনিং টুল নামের একটি নতুন ফিচার হিসেবে। যেখানে গ্রুপ এডমিনরা খুব সহজেই গ্রুপ থেকে মেসেজ ডিলিট করতে পারবেন। তবে নতুন মেসেজ ডিলিট এর ফিচারে কত সময় পরে মেসেজ ডিলিট হবে তা ঠিক করতে পারবেন গ্রুপের এডমিনরা। আপাতত হোয়াটসঅ্যাপের এই নতুন ফিচার আসাতে কতটা জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠল হোয়াটসঅ্যাপ, সেদিকে নজর রাখবে টেকগুরুরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!