এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > বাধার মনোনয়নের দীর্ঘতালিকা আদালতের জন্য তৈরি রাখছে রাজ্য বিজেপি

বাধার মনোনয়নের দীর্ঘতালিকা আদালতের জন্য তৈরি রাখছে রাজ্য বিজেপি

পঞ্চায়েত নির্বাচনে রাজ্য জুড়ে সন্ত্রাসের জেরে মামলা করে বিজেপি। আর বিজেপি বাধার মনোনয়নের দীর্ঘতালিকা আদালতের জন্য তৈরি রাখছে বলে জানা গেছে।কোন কোন এলাকার কোন কোন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিতে গিয়েছিলেন,কারা কারা আক্রান্ত হয়েছিলেন,কতজন মনোনয়ন জমা দিতে পারেন নি। কাদের হুমকির মুখে পড়তে হয়েছে এইসব কিছুর তালিকা তৈরী করতে লেগেছে বিজেপি। এই মামলার শুনানিতে হাইকোর্ট নির্দেশ দেয় আগামী সোমবার পর্যন্ত ভোট প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে। 

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাল্টা অভিযোগে বলেন, “বিজেপি-সহ বিরোধীদের সংগঠন নেই। তারা প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছে না। তাই প্রার্থী দিতে না পেরে সন্ত্রাসের অজুহাত দিচ্ছে।” আর তাই মুখ্যমন্ত্রীর এই অভিযোগ ভুল প্রমান করার উদ্যেশ্যে রাজ্য বিজেপি তাঁদের পরিকল্পনা অনুযায়ী আগামী সোমবারের মধ্যে জমা না দিতে পারা মনোনয়ন পত্রগুলি স্ক্যান করে রাজ্য দফতরেই মেল করার নির্দেশ দেয়। তবে শীর্ষ আদালত মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিন বাড়ালে তাতে সন্ত্রাস আরো বাড়বে বলে মনে করছে গেরুয়া শিবির। রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসুর কথায়, ”আমাদের দাবি, রাজ্য নির্বাচন কমিশন অনলাইনে মনোনয়ন জমা নিক, নয়তো সিআরপিফ মোতায়েন করে বিডিও, এসডিও, ডিএম দফতরে জমা নেওয়া হোক। নতুবা কমিশনের দফতরে অতিরিক্ত রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ করে মনোনয়ন নেওয়া হোক। এ ছাড়া, সন্ত্রাসের হাত থেকে বাঁচার উপায় নেই।” জানা গেছে এদিন রুপা গাঙ্গুলি, সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায় সহ বেশ কিছু বিজেপি নেতৃত্ব পঞ্চায়েত নির্বাচনে সন্ত্রাসে পরিবর্তে শান্তি ও গণতন্ত্র ফেরাতে গোলপার্কের রামকৃষ্ণ ইনস্টিটিউট অফ কালচার থেকে দক্ষিণাপন পর্যন্ত মিছিল করেন। এদিন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বেলদায়ে পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রচারে বলেন, ”আমরা ৩৫ হাজার প্রার্থী দিয়েছি। আদালতের রায় পেলে ৫৮ হাজার প্রার্থী দেব এবং তৃণমূলকে দাঁড় করিয়ে হারাব। ভোট হলেই বিজেপি জিতবে। তাই আমাদের মনোনয়নে বাধা দেওয়া হয়েছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!