এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেশবাসীর পছন্দ কে? নতুন সমীক্ষায় সামনে এল চমকে দেওয়া তথ্য

পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেশবাসীর পছন্দ কে? নতুন সমীক্ষায় সামনে এল চমকে দেওয়া তথ্য

বছর ঘুরতেই দামামা বেজে যাবে লোকসভা ভোটের। হাতে গোনা আর কয়েক মাসই বাকি মাত্র। ভোট প্রস্তুতির পাশেই যে প্রশ্নটা প্রায়ই উঁকি দিচ্ছে সেটা হল কে হবেন ভাবী প্রধানমন্ত্রী? লোকসভা ভোটের আগেই পাঁচ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনের ভোট রয়েছে। সেখানেই বিজেপি বিরোধী ঝড় প্রবল। সুতরাং বিজেপি যে এই ভোটে ভালো ফল করতে পারবে না,তার আভাস আগেভাগেই দিয়ে দিয়েছে বেশ কিছু সমীক্ষা।

কিন্তু এতো গেল বিধানসভা ভোটের কথা। তবে লোকসভা ভোটে চেহারা অন্যরূপ নেবে বলেই দাবী অনেকের। নতুন এক সমীক্ষায় উঠে এসেছে নরেন্দ্র মোদীকে পুনরায় দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চান বহু মানুষ। অথচ আগামী প্রধানমন্ত্রীর পদপ্রার্থী হিসাবে বিরোধীমহলে যাকে নিয়ে এতো চর্চা,সেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোনো উল্লেখ নেই সমীক্ষায়।

সম্প্রতি ৫৪ লাখ মানুষের মতামতের ভিত্তিতে ডেইলিহান্ট এবং নিয়েলসন ইন্ডিয়া একটি সমীক্ষা করে যাতে উঠে এসেছে ৬৩% মানুষের আস্থা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর উপর। ৫০% মানুষ মোদীকে ফের প্রধানমন্ত্রী পদে দেখার ইচ্ছা রাখেন। উল্লেখ্য,এই ৫৪ লাখ মানুষের মধ্যে প্রবাসী ভারতীয়রাও ছিলেন। ৫০% মানুষ মোদী-সমর্থনের কারণ হিসাবে জানিয়েছেন,একমাত্র নরেন্দ্র মোদীই পারেন দেশকে আরো উন্নয়নের শীর্ষে নিয়ে যেতে।

পাশাপাশি এটাও জানানো হয়েছে, রাজস্থান,মধ্যপ্রদেশ ও ছত্তিশগড়ের মানুষের মোদীর উপর বিশ্বাস রয়েছে। শুধুমাত্র তেলেঙ্গনায় একটু ব্যতিক্রমী ফল হতে পারে। তবে মিজেরাম সম্পর্কে কিছু বলা হয়নি সমীক্ষায়। অন্যদিকে,৬২% মানুষ বক্তব্যে জানিয়েছে,দেশের দুর্নীতি দূর করার ক্ষমতা রাখেন একমাত্র মোদী। তাকেই দেশের পরিত্রাতার ভূমিকায় দেখেছেন তাঁরা।

সমীক্ষায় জাতীয় কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুল গান্ধীকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখার জন্য সমর্থন করেছেন মাত্র ১৭% মানুষ। ৮% মানুষ সমর্থন করেছেন কেজরিওয়ালকে,৩% মানুষের প্রধানমন্ত্রী পদের জন্যে পছন্দ অখিলেশ যাদবকে,বসপা নেত্রী মায়াবতীর উপর আস্থা রেখেছেন মাত্র ২% মানুষ। বিজেপি বিরোধী জনপ্রিয় রাজনৈতিক মুখগুলোর উল্লেখ সমীক্ষায় উঠে এলেও অপ্রত্যাশিতভাবে বাদ পড়ে গেলেন কট্টর বিজেপি বিরোধী সবথেকে উল্লেখযোগ্য মুখ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

একথা অজানা নয় কারো,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই বিজেপি বিরোধী বৃহত্তর জোট গঠনের ডাক দিয়েছিলেন। তাকে সমর্থন করেছিলেন অবিজেপি তাবড় তাবড় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। বহুকাল আগে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন বরিষ্ট কংগ্রেস নেতা প্রণব মুখোপাধ্যায়। সম্প্রতি কংগ্রেস সুপ্রিমো রাহুল গান্ধীও নেত্রীকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখার পক্ষে সওয়াল তুলেছিলেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর তাছাড়া বর্তমানে দেশের মোদী-বিরোধী মুখ হিসাবে সবথেকে চর্চিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাছাড়া আগামী ১৯ জানুয়ারী কেন্দ্র বিরোধী দলগুলোকে এক ছাতার তলায় আনার জন্যে বিগ্রেড সমাবেশের ডাকও দিয়ে দিয়েছেন। সেই প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে মোদীর পাশাপাশি এই মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী পদের যোগ্য হকদার বাংলার নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। কিন্তু তাঁর নাম সমীক্ষায় না থাকায় রীতিমতো হতবাক সবাই। আপাতত এই বিষয়কে কেন্দ্র করে জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিকমহলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!