এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নারদ মামলায় নতুন মোড়, বড় ‘সম্মতি’ ম্যাথু স্যামুয়েলের

নারদ মামলায় নতুন মোড়, বড় ‘সম্মতি’ ম্যাথু স্যামুয়েলের

রাজ্য-রাজনীতির অন্যতম মোড় ঘুরিয়ে দেওয়া ঘটনা নারদ স্টিং অপারেশন। বিগত বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে এই ঘটনা সামনে আসে – বিজেপির রাজ্য সদর দপ্তর থেকে এই ভিডিও প্রথম প্রকাশ্যে আনা হয়। আর তারপরেই রীতিমত তোলপাড় হয়ে যায় রাজ্য-রাজনীতি। কেননা সেই বদোতে দেখা যায় ছদ্মবেশী সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েলের কাছ থেকে তাড়া তাড়া নোট নিচ্ছেন শাসকদলের প্রথমশ্রেণীর নেতারা।

এই ঘটনার প্রভাব এতটাই তীব্র হয় যে শেষমেশ ব্যাটন ধরতে স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। প্রকাশ্য জনসভায় তিনি জানান, এই ঘটনা আগে জানতে পারলে ‘অভিযুক্তদের’ হয়ত তিনি টিকিটই দিতেন না। এমনকি, এই সব কিছু ভুলে রাজ্যের ২৯৪ টি বিধানসভা কেন্দ্রেই তিনি প্রার্থী – এই ভেবে নিয়ে সাধারণ মানুষকে ভোটদানের আহ্বান জানান তিনি। রাজ্যের মানুষও আস্থা রাখেন তাঁর উপরে – দুহাত উজাড় করে ২১১ টি আসনে তাঁর দলকে জয়যুক্ত করে দ্বিতীয়বার মুখ্যমন্ত্রী করেন তাঁকে।

কিন্তু এরপরেই ‘স্টান্স’ বদলে যায় তৃণমূল কংগ্রেসের। ‘অভিযুক্তদের’ মন্ত্রীসভা থেকে বাদ দেওয়া তো দূরের কথা, নাম জড়ানো বেশ কিছু বিধায়ককেও নতুন করে মন্ত্রী করা হয়। আর তার সাথেই তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে জানানো হয় – আসলে এই ঘটনার পিছনে রয়েছে বিজেপির হাত। সিবিআইকে এই ঘটনায় রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করে তৃণমূল কংগ্রেসকে বদনাম করার অপচেষ্টা চলছে। এরই মধ্যে একদিকে যখন অভিযুক্ত নেতাদের নিয়ে সিবিআইয়ের তৎপরতা বেড়েছে – অন্যদিকে তখন এই স্টিং অপারেশন করা সাংবাদিক ম্যাথু স্যামুয়েলের নাম জড়িয়েছে অন্য মামলাতেও।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না – তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

কলকাতার মুচিপাড়া থানা এলাকায় এক ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত হতে হয়েছে তাঁকে। আর সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বারবার দাবি জানানো হয়েছে ম্যাথু স্যামুয়েলের ‘নারকো’ টেস্ট করা দরকার। আর তার জন্য দরকার স্বয়ং ম্যাথু স্যামুয়েলের সম্মতি। এই নিয়ে এতদিন বেশ টানাপোড়েন চলছিল – এমনকি বিগত বেশ কয়েকটি শুনানিতে আদালতে হাজির হন নি ম্যাথু। যা নিয়ে রীতিমত উষ্মাও প্রকাশ করেন মামলার বিচারপতি।

অবশেষে গত শুক্রবার ব্যাঙ্কশাল কোর্টের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ম্যাথুর আইনজীবী জানান, ম্যাথু স্যামুয়েল পুলিশকে সব রকম সহযোগিতার জন্য তৈরী, আর তাই পিটিশন করে তিনি জানিয়েছেন যে ‘নারকো’ পরীক্ষার জন্যও তিনি তৈরী। সূত্রের খবর, আগামী অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে পুলিশের তরফে আদালতে জানিয়ে দেওয়া হবে, কোথায় হবে ওই ‘নারকো’ পরীক্ষার ব্যবস্থা – আর তারপরেই এই মামলার গতি অনেকটা স্পষ্ট হবে। এমনকি এর উপর ভিত্তি করে বদলে যেতে পারে নারদ মামলার গতিপথও – আর তাই সব মিলিয়ে টানটান উত্তেজনা রাজনৈতিক মহলে।

Top
error: Content is protected !!