এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কলকাতা হাইকোর্টের নতুন পদক্ষেপে ডিএ মামলায় নতুন মোড় – জানুন বিস্তারিত

কলকাতা হাইকোর্টের নতুন পদক্ষেপে ডিএ মামলায় নতুন মোড় – জানুন বিস্তারিত

রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ডিএ মামলার নিষ্পত্তি যেন কিছুতেই হচ্ছে না। দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পরে গত ৩১ শে আগস্ট হাইকোর্টের বিচারপতি দেবাশিস করগুপ্ত ও বিচারপতি শেখর বি শরাফের ডিভিশন বেঞ্চ ডিএ মামলায় এক ঐতিহাসিক রায়ে জানিয়ে দেন – ডিএ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সাংবিধানিক অধিকারের মধ্যে পরে, কখনোই রাজ্য সরকারের দয়ার দান নয়।

কিন্তু সেই ডিএর হার কি হবে বা তা বছরে কতবার করে দেওয়া হবে – এই সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য কলকাতা হাইকোর্ট, স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুন্যাল বা স্যাটকে নির্দেশ দেয়। স্যাটে প্রথমেই রাজ্য সরকারের তরফে হলফনামা দেওয়া হয় না – এমনকি হলফনামা জমা দেওয়ার শেষ দিনেও রাজ্য সরকারের তরফে কোনো আবেদন জমা পরে না। ফলে বিনা হলফনামাতেই মামলা শুরু হলে – তখন রাজ্য সরকার ফলফনামার জন্য অতিরিক্ত সময় দাবি করে।

যা স্যাটের বিচারপতিরা পত্রপাঠ খারিজ করে দেন। এরপর মামলার শুনানিতে মামলাকারীদের তরফে সর্দার আমজাদ আলি ও ফিরদৌস শামিম সওয়াল করেন। রাজ্য সরকারি আইনজীবীরা সওয়ালে এমন কিছু তথ্য বলেন – যার পরিপ্রেক্ষিতে স্যাটের বিচারপতিরা তাঁদের উপযুক্ত নথি জমা দিতে বলেন। অন্যদিকে, মামলাকারীদেরও কিছু নথি জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়। মামলাকারীরা নিজেদের নথি জমা দিলেও রাজ্য সরকার জানায় তাঁদের নথি নাকি হারিয়ে গেছে – ফলে অতিরিক্ত সময় চায়।

এই অবস্থায় স্যাটের বিচারপতিরা জানিয়ে দেন এই মামলার রায় ১১ ই ডিসেম্বরের মধ্যে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী দিতে হবে – তাই ৬ ই ডিসেম্বরের মধ্যে যদি সেই নথি জমা দেওয়া হয় তবেই তা গ্রাহ্য হবে, নাহলে ওই মামলার রায়দান হয়ে যাবে। কিন্তু, ৬ ই ডিসেম্বর রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয় এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তারা কলকাতা হাইকোর্টে একটি রিভিউ পিটিশন করেছেন, যা গৃহীত হয়েছে – কিন্তু তখনো মামলার কোন দিন দেওয়া হয় নি। তাই রাজ্য সরকারকে আরেকটু সময় দেওয়া হোক।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

স্যাট আবার জানায় ১৯ শে ডিসেম্বরের মধ্যে কলকাতা হাইকোর্টের এই সংক্রান্ত নির্দেশিকা আনতে হবে। অন্যদিকে, রাজ্য সরকারের তরফে কলকাতা হাইকোর্টে এই সংক্রান্ত যে হলফনামা দেওয়া হয় তা ত্রুটিযুক্ত হওয়ায় খারিজ হয়ে যায়। পরে ১৪ ই ডিসেম্বরের মধ্যে আদালতের নির্দেশ মত রাজ্য সরকার আবার হলফনামা জমা দেয়। সেই মামলার শুনানি গত ১৮ ই ডিসেম্বর হওয়ার কথা থাকলেও – শেষপর্যন্ত তা আর হয় না। ফলে ১৯ সে ডিসেম্বর স্যাট জানিয়ে দেয় আবার এই মামলার শুনানি হবে আগামী ২৪ শে জানুয়ারি।

এদিকে, কলকাতা হাইকোর্টের তৎকালীন প্রধান বিচারপতি দেবাশিস করগুপ্ত অবসর নেওয়ায় এই মামলা যেন বিশ বাঁও জলে চলে যায়। আর তাই এবার মামলাকারীরা স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে বর্তমান দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দারের কাছে রিভিউ পিটিশনের শুনানির জন্য আবেদন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএ মামলার রিভিউ পিটিশনের জন্য নতুন বেঞ্চ গঠন করা হয়েছে – যেখানে রয়েছেন, বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ও বিচারপতি শেখর বি শরাফ।

মূল মামলার রায় প্রদানকারী দুই বিচারপতির অন্যতম শেখর বি শরাফকে নবগঠিত বেঞ্চে রাখায় মামলাকারীদের আশা, এই মামলা আবার নতুন করে শুরু করতে হবে না। ফলে – একটি বা দুটি শুনানির মধ্যেই এই রিভিউ পিটিশনের ফয়সালা হয়ে যেতে পারে। তবে কবে সেই মামলার শুনানি? মামলাকারীদের আশা – যেহেতু ইতিমধ্যেই ডিভিশন বেঞ্চ গঠিত হয়ে গেছে তাই আগামী সপ্তাহের মধ্যেই শুনানি শুরু হয়ে যেতে পারে। সবমিলিয়ে ডিএ মামলায় নতুন মোড় – এই রিভিউ পিটিশনের কি রায় দেয় ডিভিশন বেঞ্চ, সেদিকেই এখন তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!