এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > কর্নাটকে গেরুয়া ঝড়ের পরেও নতুন এই সমস্যায় ঘুম উড়তে পারে ইয়েদুরাপ্পার! তড়িঘড়ি ছুটলেন দিল্লি

কর্নাটকে গেরুয়া ঝড়ের পরেও নতুন এই সমস্যায় ঘুম উড়তে পারে ইয়েদুরাপ্পার! তড়িঘড়ি ছুটলেন দিল্লি



কংগ্রেস-জেডিএস থেকে প্রায় 17 জন বিক্ষুব্ধ বিধায়ক বিজেপিতে নাম লিখিয়েছিলেন। আর তারপরেই নাটকীয় পরিস্থিতি তৈরি হয় কর্নাটকে। কুমারস্বামীর সরকার থাকবে কি থাকবে না, তা নিয়ে জলঘোলা পরিস্থিতি তৈরি হয়। পরবর্তীতে 105 জন বিধায়কের সঙ্গে একজন নির্দলকে যোগ করে 106 জন বিধায়ক নিয়ে সরকার গড়ে বিজেপির বিএস ইয়েদদুরাপ্পা।

তবে যে 17 জন বিধায়ক সেই সময় পদত্যাগ করেছিলেন, তাঁদের বিধায়ক পদ খারিজ হয়ে যায়। পরবর্তীকালে তাঁরা বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন – আর এবার তাদের গড়ে উপনির্বাচন হয়ে গেল। সেখানেও জয়লাভ করেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। তবে জয়লাভ করে বিজেপির যেখানে স্বস্তিতে থাকার কথা, ঠিক সেখানেই অস্বস্তি বজায় থাকতে দেখা গেল ইয়েদুরাপ্পার মনে।

জানা গেছে, সরকার গঠনের পরে এই 17 জন বিধায়ককে এবার মন্ত্রিসভায় ঠাঁই দেওয়ার বড়সড় চ্যালেঞ্জ রয়েছে সেই ইয়েদুরাপ্পার কাছে। ফলে সেদিক থেকে এদিন জয়ের পরই তড়িঘড়ি দিল্লি ছুটতে দেখা গেল তাঁকে। বস্তুত, এই বিরোধী জোটের 17 বিধায়ককে সঙ্গে নেওয়ার সময়ই বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, যে 17 জন বিক্ষুব্ধ বিধায়করা তাদের সঙ্গে এসেছেন, তাদের তিনি মন্ত্রিত্ব পদ দেবেন।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর এদিন উপনির্বাচনে জয়ের পর সেই বিএস ইয়েদুরাপ্পা বলেন, “17 জন বিক্ষুব্ধ বিধায়ককে নিয়ে আমি সেই প্রতিশ্রুতি পালন করব। এদিনের জয়ের পর দিল্লিতে গিয়ে সেই বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।” বিশেষজ্ঞরা বলছেন, 17 জন বিধায়ককে নিজেদের দলে নিয়ে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী যে কথা দিয়েছিলেন, তা যদি তিনি পূরণ করতে না পারেন, তাহলে কর্ণাটক বিজেপির পক্ষে অত্যন্ত অসুবিধার কারন হতে পারে।

আর তাই সেই সমস্ত বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের সন্তুষ্ট রাখতে এবার নিজের দেওয়া কথা পূরণ করার পথে এগোবেন বিএস ইয়েদুরাপ্পা। তবে শেষ পর্যন্ত 17 জন বিধায়কের মন্ত্রিত্বের প্রতিশ্রুতি দেওয়া বিএস ইয়েদদুরাপ্পা সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে কতটা সক্ষম হন, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের। আর তা করতে গিয়ে নিজের দলের কোন নেতাকে মন্ত্রীত্ব থেকে বঞ্চিত করেন সেদিকেও নজর রাখছে সকলে।

কেননা, বিজেপির কোনো নেতাকে মন্ত্রীত্ব ছাড়তে হলে, তিনি তা সহজ ভাবে নাও নিতে পারেন। ফলে, তাঁরা নতুন করে বিদ্রোহের রাস্তায় হাঁটতে পারেন বলেও শঙ্কা করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে কর্ণাটক নিয়ে বিজেপির অস্বস্তি সহজে মিটছে না। আর তাই সেইসব সামাল দিতে তড়িঘড়ি দিল্লি ছুটে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা – মোদী-শাহের সঙ্গে আলোচনা করে এর সুষ্ঠু সমাধান বার করতে। ফলে, উপনির্বাচনে কর্ণাটকে গেরুয়া ঝড় উঠলেও – নতুন সমস্যায় জর্জরিত বিজেপি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!