এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > পুরুলিয়া-ঝাড়গ্রাম-বাঁকুড়া > বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর আবারো নতুন ‘বিপদে’ সৌমিত্র খাঁর আত্মীয় বাড়ি বলে অভিযোগ

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর আবারো নতুন ‘বিপদে’ সৌমিত্র খাঁর আত্মীয় বাড়ি বলে অভিযোগ

রাজ্য রাজনীতিতে এখন খবরের শিরোনামে তৃণমূল কংগ্রেসের বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। কিছুদিন আগেই তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দলের বর্তমানে অঘোষিত দুনম্বর নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একরাশ বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন। কিন্তু, গেরুয়া শিবিরে যোগদানের পরেই একের পর এক অস্বস্তিকর ঘটনায় জড়িয়ে যাচ্ছেন তিনি ও তাঁর আত্মীয়রা।

ইতিমধ্যেই, তাঁর বিরুদ্ধে স্বয়ং তাঁর মামাতো ভাই প্রশান্ত মন্ডল বড়জোড়া থানায় একটি প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রশান্তবাবু অভিযোগ জানিয়েছেন, সৌমিত্রবাবু নাকি সরকারি চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে তাঁর কাছ থেকে তিন লক্ষ টাকা নিয়েছেন। যদিও, সৌমিত্রবাবু পাল্টা অভিযোগ করেন – তিনি নাকি দলবদল করাতেই শাসকদল তাঁর ভাইকে ‘খুনের হুমকি’ তাঁর বিরুদ্ধে এমন মিথ্যা অভিযোগ করতে বাধ্য করাচ্ছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আর সেই ঘটনার রেশ মিলিয়ে যেতে না যেতেই সৌমিত্রবাবু অভিযোগ জানিয়েছিলেন তাঁর শ্বশুরবাড়িতে ঢিল ছোঁড়া হচ্ছে এবং তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই সেই কাজ করছে। যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে অভিযোগটি ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু, সৌমিত্রবাবু পাল্টা হুমকি দেন, তৃণমূল নেতারা যেন ভুলে না যান, তাঁদেরও শ্বশুরবাড়ি আছে! আর সেখানেও কেউ ভবিষ্যতে ইট ছুঁড়তে পারে!

আর এবার সৌমিত্রবাবু অভিযোগ তুললেন, তাঁর শ্বশুরবাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে। এবারও তাঁর অভিযোগের তীর রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। এই অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের পাশাপাশি বিদ্যুৎ অফিসও অস্বীকার করেছে। উভয় তরফেই দাবি – এটা নাকি স্থানীয় দুষ্কৃতীদের কাজ। কিন্তু সৌমিত্রবাবু স্পষ্ট অভিযোগ করেন, তৃণমূল নেতাকর্মী এবং শাসক দল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা নানাভাবে আমাকে অপদস্থ করার চেষ্টা করছে। আমার শ্বশুর একজন বয়স্ক নাগরিক এবং অরাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তাঁর সঙ্গে এই ধরনের আচরণ মেনে নেওয়া যায় না।

Top
error: Content is protected !!