এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > ভারতের তথ্য নিরাপত্তার নতুন দিক খুলে দিতে ‘ঐতিহাসিক’ আইন আনছে কেন্দ্র, দাবি মন্ত্রীর

ভারতের তথ্য নিরাপত্তার নতুন দিক খুলে দিতে ‘ঐতিহাসিক’ আইন আনছে কেন্দ্র, দাবি মন্ত্রীর

প্রযুক্তি নির্ভর বর্তমান সাইবার সময়ে ‘‌ডেটা লিক’‌ নিঃসন্দেহেই একটি বড়সড় মানসিক অশান্তির কারণ হয়ে উঠছে আমজনতার। বর্তমান সময় যখন একান্তই ইন্টারনেট ডেটা নির্ভর, তখন সেই ডেটার নিরপত্তা সংক্রান্ত বিষয়টিও অবশ্যম্ভাবী ভাবেই জরুরী হয়ে উঠেছে। কেন্দ্রীয় সরকার তাই আইন প্রনয়নের মাধ্যমে সরকারী গোপণ তথ্যই হোক বা কোনো সাধারণ মানুষের তথ্য – সব কিছুকেই সুরক্ষিত করার জন্যে একটি বিশেষ পদক্ষেপ গ্রহণের তোড়জোড় শুরু করেছে।

এই প্রসঙ্গে কেন্দ্রের আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ জানালেন বিচারপতি শ্রীকান্তের নেতৃত্বে তৈরী হওয়া কমিটি কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য নিরাপত্তা বিষয়ক আইনি প্রস্তাব এরমধ্যেই পেশ করেছেন। তবে এই প্রস্তাবে ঠিক কী রয়েছে সেই প্রসঙ্গে বিষদে তিনি কিছুই জানাননি। তবে কেন্দ্রীয় এই মন্ত্রীর মতে – এই আইন প্রনয়ন হলে ভারতের তথ্য নিরাপত্তার ক্ষেত্রে নতুন পথের সূচনা হবে। শুধু ভারতের নয়, গোটা বিশ্বের ক্ষেত্রেই এই আইন উদাহরণ হয়ে উঠতে পারে। অবশ্য এখনই তিনি সম্পূর্ণ আইনের বিষয়ে পরিষ্কার কোনো বিবৃতি দিতে পারেননি।

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

বরং তিনি জানালেন এবার আইনসভায় যাবে প্রস্তাবিত এই বিলটি। সেখানে আইন হিসাবে এটিকে কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায়, সে বিষয়েও আলোচনা করা হবে। আর তারপরেই এই প্রস্তাবের বয়ান আইনে রূপান্তরিত হতে পারবে। যদিও সরকারী এই পদক্ষেপের প্রসঙ্গে বিরোধী দল গুলি অন্য কথা বলছে। বিরোধী দলের মতে সরকার এই আইন প্রণয়ণের ক্ষেত্রে সফল হয় তাহলে নিশ্চিত ভাবেই ভারতের সাধারণ মানুষের ব্যক্তিগত তথ্যের অধিকারে নজরদারি চালানোর চেষ্টা করবে। অর্থাৎ ইন্টারনেটের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের গতিবিধির উপর কড়া নজর রাখাই এই আইনের অন্যতম একটি দিক হবে বলে বিরোধীদের অভিযোগ।

Top
error: Content is protected !!