এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > নতুন করে সামনে এল কুকুরের ডায়ালিসিস কান্ড! চূড়ান্ত অস্বস্তিতে রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী!

নতুন করে সামনে এল কুকুরের ডায়ালিসিস কান্ড! চূড়ান্ত অস্বস্তিতে রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী!

পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে নেতা-নেত্রীদের ব্যক্তিগত প্রতিপত্তি খাটিয়ে অতিরিক্ত সুযোগ-সুবিধা গ্রহণের ঘটনা নতুন কিছু নয়। কিন্তু সম্প্রতি মানুষের হাসপাতালে কুকুরের ডায়ালাইসিসের মত ঘটনা নজর কেড়েছে ওয়াকিবহাল মহলের। বিগত 2015 সালে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে কুকুরের ডায়ালাইসিস করার জন্য বিশেষ প্রস্তুতি গ্রহণ করার অভিযোগ উঠেছিল তৎকালীন বিভাগীয় প্রধান এবং বর্তমান রাজ্যের স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য রাজেন পান্ডের বিরুদ্ধে।

যেখানে অভিযোগ উঠেছিল, কুকুরের জন্য ডায়ালাইসিসের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিল এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ। আর সেই কুকুরটি ছিল তৃণমূলের চিকিৎসক সংগঠনের অন্যতম নেতা নির্মল মাজির ‘আত্মীয়ের’ বলেও অভিযোগ উঠেছিল। আর এবার সেই 2015 সালের ঘটনায় তৃণমূলের নেতা তথা বর্তমানে রাজ্যের মন্ত্রী নির্মাল মাজিকে বিশেষ সতর্কবার্তা প্রদান করল মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া। শুধু নির্মলবাবুকে সতর্কবার্তা প্রদানই নয়, ঘটনার সঙ্গে জড়িত তিন শীর্ষ অধিকর্তাকেও প্রশ্নের মুখে ফেলে মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া।

যদিও যখন কুকুরের ডায়ালাইসিসের মত ঘটনা সামনে এসেছিল, সেই সময়কার বিভাগীয় প্রধান রাজেন পান্ডে স্পষ্ট জানিয়েছিলেন, মানুষ ও কুকুর দুজনেই স্তন্যপায়ী প্রাণী। দুজনের একই মেশিনে ডায়ালাইসিস হতে পারে। এতে কি এমন হয়েছে! কিন্তু সেই সময় এই ঘটনা নিয়ে রীতিমতো নিন্দার ঝড় উঠেছিল। সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু হয়ে গিয়েছিল, যে এসএসকেএম হাসপাতালে সামান্য চিকিৎসা পাওয়ার জন্য অনেক সময় মানুষকে দিনের পর দিন অপেক্ষা হয়, সেখানে ডায়ালিসিসের মতো বিশেষ চিকিৎসা সুবিধা কুকুরকে দেওয়ার জন্য কি করে প্রস্তুতি নিতে পারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ!

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিকে এই ঘটনার নিন্দা করার পাশাপাশি প্রবাসী চিকিৎসক কুনাল সাহা মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া এবং কলকাতা হাইকোর্টের কাছে এই বিষয়ে বিশেষ অভিযোগ দায়ের করেন। আর এবার ঘটনার চার বছর অতিক্রান্ত হওয়ার পরে এই সম্পূর্ণ ঘটনা নিয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করল মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সকলকে তীব্র ভাষায় ভর্ৎসনা করেন এমসিআই। পাশাপাশি ভবিষ্যতে এমন ঘটনা যেন না ঘটে, সেই সতর্কবার্তাও দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে ঘটনাকে নিন্দাজনক বলেও ভর্ৎসনা করে মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া। কাজেই সমগ্র ব্যাপার নিয়ে রাজ্যের হেভিওয়েট মন্ত্রী এবং নামজাদা তৃণমূল নেতা নির্মল মাজি যে চরম অস্বস্তিতে পড়েছে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। যদিও গোটা ঘটনা প্রসঙ্গে নির্মলবাবু বলেন, অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই। মামলা কলকাতা হাইকোর্টে আগেই খারিজ হয়ে গেছে। এমন কোনো চিঠি পাইনি।

তবুও গোটা ব্যাপার নিয়ে যেভাবে ঘটনার সঙ্গে জড়িত রাজনৈতিক নেতা এবং আধিকারিকদেরকে ভর্ৎসনা করল মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া, তাতে করে সমগ্র ব্যবস্থা প্রশ্নের মুখে পড়েছে বলে মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের। এবারে ভবিষ্যতে মেডিকেল কাউন্সিলের এই সতর্কবার্তা এবং ভর্ৎসনা এইরকম ধরনের ঘটনা থেকে প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিরত রাখতে পারে কিনা, সেই দিকেই লক্ষ্য থাকবে ওয়াকিবহাল মহলের। পাশাপাশি বিরোধীরাও এই ঘটনা নিয়ে কি করেন সেদিকেও নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!