এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > পিসি ভাইপোর জোটই একমাত্র নরেন্দ্র মোদির অশ্বমেধের ঘোড়া, জানালো এবিপির সমীক্ষা

পিসি ভাইপোর জোটই একমাত্র নরেন্দ্র মোদির অশ্বমেধের ঘোড়া, জানালো এবিপির সমীক্ষা

এগিয়ে আসছে লোকসভা নির্বাচন – আর সেই নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে বিজেপির যে অশ্বমেধের ঘোড়া ছুটছে তা থামাতে পারে একমাত্র পিসি-ভাইপোর জোট, স্পষ্টভাবে তা জানিয়ে দিল এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষা। গত ১ লা নভেম্বর এই দুই সংস্থা মিলিতভাবে যে সর্বশেষ সমীক্ষা প্রকাশ করেছে তাতে দুরকমের সমীকরণ সামনে আনা হয়েছে। প্রথম সমীকরণে দেখানো হয়েছে লোকসভার আসনের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের বৃহত্তম রাজ্য উত্তরপ্রদেশে যদি সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজবাদী পার্টি ও লোকদলের বৃহত্তম জোট হয় তাহলে কি হবে।

আর দ্বিতীয় সমীকরণে দেখানো হয়েছে সেই বৃহত্তর জোট না হলে কি হতে পারে চিত্র। ভারতের রাজনৈতিক ইতিহাসে উত্তরপ্রদেশ সবসময়েই গুরুত্ত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে এসেছে। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনেও দেখা গেছে উত্তরপ্রদেশের ৮০ টির মধ্যে জোটসঙ্গীদের আসন সহ মোট ৭৩ টি আসন নিজেদের দখলে এনে একক বৃহত্তম দল হিসাবে কেন্দ্রে ক্ষমতায় এসেছে বিজেপি। আর এবারে, এবিপি-সি ভোটারের সমীক্ষা অনুযায়ী উত্তরপ্রদেশের ‘পিসি’ মায়াবতী ও ‘ভাইপো’ অখিলেশ যাদব যদি শেষপর্যন্ত জোটের রাস্তায় হাঁটেন তাহলে উত্তরপ্রদেশের চিত্র হবে –
মোট আসন – ৮০
বিজেপি নেতৃত্ত্বাধীন এনডিএ – ৩১
কংগ্রেস নেতৃত্ত্বাধীন ইউপিএ – ৫
সপা-বসপার নেতৃত্ত্বাধীন মহাজোট – ৪৪

আর সেক্ষেত্রে সারা ভারতের ক্ষেত্রে সামগ্রিক চিত্রটা দাঁড়াবে –
মোট আসন – ৫৪৩
বিজেপি নেতৃত্ত্বাধীন এনডিএ – ২৬১
কংগ্রেস নেতৃত্ত্বাধীন ইউপিএ – ১১৯
অন্যান্য ও আঞ্চলিক দল – ১৬৩

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না – তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

কিন্তু যদি উত্তরপ্রদেশে ‘পিসি-ভাইপোর’ মহাজোট না হয় সেক্ষেত্রে উত্তরপ্রদেশের চিত্র হবে –
মোট আসন – ৮০
বিজেপি নেতৃত্ত্বাধীন এনডিএ – ৭০
কংগ্রেস নেতৃত্ত্বাধীন ইউপিএ – ২
সপা – ৪
বসপা – ৪

আর সেক্ষেত্রে সারা ভারতের ক্ষেত্রে সামগ্রিক চিত্রটা দাঁড়াবে –
মোট আসন – ৫৪৩
বিজেপি নেতৃত্ত্বাধীন এনডিএ – ৩০০
কংগ্রেস নেতৃত্ত্বাধীন ইউপিএ – ১১৬
অন্যান্য ও আঞ্চলিক দল – ১২৭

অর্থাৎ অখিলেশ যাদব ও মায়াবতীর দলের জোটের উপরে লোকসভা ভোটের অনেক পরিসংখ্যান নির্ভর করবে বলে মনে করা হচ্ছে এই সমীক্ষায়। কিন্তু, এই দুই দলের বৈরিতা দীর্ঘদিনের, যদিও সাম্প্রতিক অতীতে বেশ কিছু উপনির্বাচনে এই দুই দল একসাথে লড়াই করে বিজেপিকে রুখে দিয়েছে। এখন দেখার, আগামী লোকসভা নির্বাচনে সত্যিই এই ‘পিসি-ভাইপোর’ জোট দানা বাঁধে কিনা। আর দানা বাঁধলেও তা নরেন্দ্র মোদির অশ্বমেধের ঘোড়া আটকে দিতে পারে কিনা।

Top
error: Content is protected !!