এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > নেতাজিকে খুনের ষড়যন্ত্রে জড়িত স্তালিন, জানতেন জওহরলাল বিস্ফোরক দাবি সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর

নেতাজিকে খুনের ষড়যন্ত্রে জড়িত স্তালিন, জানতেন জওহরলাল বিস্ফোরক দাবি সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর

নেতাজিকে খুনের ষড়যন্ত্রে জড়িত স্তালিন, জানতেন জওহরলাল বিস্ফোরক দাবি সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর। নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর মৃত্যু নিয়ে রহস্য আজও অব্যাহত। ১৯৪৫ সালে বিমান দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছিলেন তিনি এমনটা অনেকবার দাবি করা হলেও সেই নিয়ে বিতর্কও অব্যাহত। বাঙালি বার বার কেন্দ্রের কাছে দাবি জানিয়ে এসেছে যে তাদের প্রিয় নেতা কিভাবে মারা গেলেন তা নিয়ে তথ্য পেশ করতে.সেই সত্যতা উন্মোচন করতে ,কিন্তু আজ পর্যন্ত মিলেছে শুধু প্রতিশ্রুতি। কাজের কাজ কিছু হয়নি।
আর এদিন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী বাঙালির সেই আবেগকে আর একবার উস্কে দিয়ে দাবি করলেন যে ১৯৪৫ সালে কোনো বিমান দুর্ঘটনায় মারা যাননি নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু। তাঁকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছিল। আর সেই খুনের ষড়যন্ত্রে জড়িত ছিল পূর্বতন সোভিয়েত উনিয়নের তত্‍কালীন প্রেসিডেন্ট জোসেফ স্তালিন।শুধু এটুকু দাবি করেই ক্ষান্ত হননি তিনি পাশাপাশি দাবি করেছেন যে জওহরলাল নেহরু সব জানতেন, তিনিও সেই ষড়যন্ত্রে যুক্ত ছিলেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এদিন আগরতলার সংস্কৃতিক গৌরব সংস্থার আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে এসে বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী এমনটাই দাবি করেন যা ঘিরে তোলপাড় গোটা দেশ। জওহরলাল নেহেরু এবং জাপানিরা মিলে তাঁকে খুনের ষড়যন্ত্র করেন। সেই সময় সুভাষ চন্দ্র বসু রাশিয়াতে থাকতে চেয়েছিলেন। তাঁকে থাকার অনুমতিও দেয় রাশিয়া। জওহরলাল নেহরু সব জানতেন। পরে তাঁকে সাইবেরিয়াতে গোপনে খুন করা হয়। সেই নির্দেশ দিয়েছিলেন স্তালিন।
সাতেই তিনি বলেন যে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী স্বীকার করে নিয়েছিলেন সেই সময় ভারত শাসন করা খুবই কঠিন হয়ে পড়েছিল। ব্রিটিশ সেনাবাহিনীতে নিযুক্ত ভারতীয়রা ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে অস্ত্র তুলে নিচ্ছিল। অপরদিকে সিঙ্গাপুরে আজাদ হিন্দ সরকার গঠনের পর ব্রিটিশরা আরও ভয় পেয়ে যায়। নেতাজির কারণেই ব্রিটিশরা দেশ ছাড়তে বাধ্য হয়। পরাধীনতার বেড়াজাল থেকে মুক্ত হয় ভারত।
এদিকে বিজেপি সংসদ লোকসভা ভোটের আগে ফের নেতাজির অন্তর্ধান রহস্য নিয়ে মুখ খুলে কংগ্রেসকে কোনঠাসা করে বাঙালির আবেগকে উস্কে দিলেন বলেই মনে করছেন রাজনৈতিকমহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!