এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ন্যাশনাল এক্সিকিউটিভ কমিটির বৈঠকে মোদী-শাহদের মুখে বারেবারে শুধু বাংলা নিয়েই আলোচনা

ন্যাশনাল এক্সিকিউটিভ কমিটির বৈঠকে মোদী-শাহদের মুখে বারেবারে শুধু বাংলা নিয়েই আলোচনা

গতকাল থেকে দিল্লিতে বিজেপির দু দিনের জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠক শুরু হয়েছে। এবার সেই বৈঠকেই মূল আলোচ্য বিষয় হিসাবে উঠে এল এই বাংলা। আগামী লোকসভা ভোটে বাংলাই যে তাঁদের পাখির চোখ তা বারে বারে বঙ্গ সফরে এসে বুঝিয়ে দিয়েজেন বিজেপির নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহরা।

এদিনের জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকেও উঠে এল সেই কথাই। পাশাপাশি দলীয় সংগঠনের ভিতকে মজবুত করতে বঙ্গ নেতৃত্বকে যে 100% বুথ কমিটি তৈরির কথা বলেছিলেন এদিন সেই ব্যাপারে কতটা কাজ এগোলো সে কথাও নেতাদের কাছে শোনেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

সূত্রের খবর, এখনও এই ব্যাপারে কিছু কাজ বাকি রয়েছে। আগামী অক্টোবরের মধ্যেই যে সেই কাজ সম্পূর্ন করতে হবে এদিন সেই ব্যাপারেও বাংলার নেতাদের জানিয়ে দিয়েছেন অমিত শাহ। সূত্রের খবর, এদিনের জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকের আগে দলের শীর্ষ পদাধীকারিদের সাথে একটি বৈঠক করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি। সেখানেই রাজ্যে যে কেন্দ্রীয় প্রকল্প রয়েছে সেই ব্যাপারে জোরদার প্রচার চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। এমনকী সংগঠনকে বাড়াতে রাজ্যের প্রতি পঁচটি বাড়িতে একজন করে কর্মকর্তা যাতে জনসংযোগে যান সেই নির্দেশও দিয়েছেন তিনি বিভিন্ন ইউনিটগুলোকে।

এদিন এই বৈঠক প্রসঙ্গে বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা বলেন, ” অমিতজি জানিয়েছেন, সারা দেশের 22 কোটি মানুষ কিভাবে কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন তা বাড়ি বাড়ি গিয়ে বোঝাতে হবে। পাশাপাশি হাওয়ার ওপর ভর করে নির্বাচনে না লড়ে এখন থেকেই বুথ কমিটির কাজ সম্পূর্ন করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।” এদিকে এই বৈঠক প্রসঙ্গে বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “আজকের বৈঠকে গোটা আলোচনায় বাংলাই উঠে এসেছে। সর্বভারতীয় সভাপতি এই বাংলা থেকে আগামী লোকসভায় 22 টি আহন দখলের টার্গেট দিয়েছেন। আমরা তার সাথে আরও পাঁচ থেকে সাতটি আসন যোগ করছি।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

রাজনৈতিক মহলের মতে,  2019 এর লোকসভার দিকে তাকিয়ে নিজেদের আসন বাড়াতে এখন বাংলাই বড় ভরসা গেরুয়া শিবিরের। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলায় এখন মোদী-শাহরা কতটি থাবা বসাতে পারবে তা নিয়ে সন্দিহান অনেকেই।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!