এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > নন্দীগ্রামে প্রথমে দলীয় হুইপ অমান্য করলেও, অবশেষে পদত্যাগের পথেই হাঁটলেন তৃণমূল নেতা

নন্দীগ্রামে প্রথমে দলীয় হুইপ অমান্য করলেও, অবশেষে পদত্যাগের পথেই হাঁটলেন তৃণমূল নেতা

গোষ্ঠী কোন্দল এর জন্য দল নির্দেশ তাই পদত্যাগ করতে। কিন্তু প্রাথমিকভাবে সেই নির্দেশ না মানলে ও পরে ভিডিও কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিলেন নন্দীগ্রাম ১ ব্লকে কালিচরনপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শেখ আব্দুল্লাহিম আলরাজি। ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছে, ভুল বোঝাবুঝির অবসান হওয়ায় সমস্যার সমাধান হয়েছে।

বিডিও সুব্রত মল্লিক বলেন, “বুধবার কালীচরণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ১৬তারিখ হেয়ারিং আছে। তারপর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ”

স্থানীয় সূত্রে খবর, গত ২৪সেপ্টেম্বর নন্দীগ্রাম ১ ব্লকের ১০টি গ্রাম পঞ্চায়েতের নতুন বোর্ড গঠন। দলীয় নির্দেশ অনুযায়ী ৯টি গ্রাম পঞ্চায়েতে প্রধান নির্বাচন প্রক্রিয়া নির্বিঘ্নে সম্পন্ন হলেও কালীচরণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনকে ঘিরে জটিলতা তৈরি হয়।

দলের তরফে শেখ সৈয়ম কাজিকে প্রধান স্থির করা হয়েছিল। কিন্তু গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট ১৩জন সদস্য ভোটাভুটিতে অংশ নেয়। ভোটাভুটিতে ৮ভোটে জয়লাভ করে শেখ আবদুল্লাহিম আলরাজি। এরপরই এই নিয়ে দলের অভ্যন্তরে তীব্র জলঘোলা শুরু হয়।

এরপর দলের তরফে পঞ্চায়েত সদস্যদের উপসমিতি গঠনের প্রক্রিয়ায় যোগ না দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। দলের নির্দেশ মেনে গত ১১অক্টোবর পঞ্চায়েতের উপসমিতি গঠনের দিন কোনও পঞ্চায়েত সদস্য গ্রাম পঞ্চায়েতে উপস্থিত হননি।

যার ফলে বুধবার ফের উপসমিতি গঠনের দিন ধার্য করা হয়। কিন্তু এদিনও কোনও সদস্য গ্রাম পঞ্চায়েতে উপস্থিত হননি। এরপর এদিন দুপুরেই আলরাজি সাহেব বিডিওর কাছে গিয়ে পদত্যাগপত্র জমা দেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন,” আমি আট জন পঞ্চায়েত সদস্যের ভোটে প্রধান নির্বাচিত হয়েছিলাম। এখন আমি সকলের পছন্দের জায়গায় নেই। তাই আমি পদত্যাগ করেছি। তবে আমি এখনও দলের একনিষ্ঠ সৈনিক। আগামী দিনে দলের সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নেব। ” এদিকে নন্দীগ্রাম ১ ব্লকের তৃণমূল সভাপতি মেঘনাদ পাল বলেন, “ভুল বোঝাবুঝির জেরে এই অপ্রীতিকর ঘটনাটি ঘটেছিল। এখন সমস্ত কিছু ঠিক হয়ে গিয়েছে।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!