এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নবান্নের সিদ্ধান্তে এবার বিপাকে পড়তে চলেছেন সরকারি কর্মীরা

নবান্নের সিদ্ধান্তে এবার বিপাকে পড়তে চলেছেন সরকারি কর্মীরা

এবার শুরু হলো কড়াকড়ি আর দেরীকরে আসা চলবে না হাজিরা দিতে হবে ঠিক সময়েই।আর তাই পুরাতন নিয়মের পুরিপুরি অবলুপ্তি ঘটতে চলেছে, বিশাল খাতাত লাইন দিয়ে সই‌ করে হাজিরা দেওয়ার দিন শেষ। পাকাপাকি ভাবে এই‌ কথা নবান্ন থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। নাবান্ন সুত্রে খবর যে এবার থেকে বায়োমেট্রিক হাজিরা কেই বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে। এছাড়াও তাঁরা জানায় যদি ‌কেউ তিনদিন দেরীতে হাজিরা যায় সেই কর্মীর একটি ক্যাজুয়াল‌ লিভ কাটা যাবে। পাশাপাশি বেতন ও এই‌ বায়োমেট্রিকে উপস্থিতির রেকর্ড অনুযায়ী দেওয়া হবে।
যদিও এর আগে সরকার হাজিরার ক্ষেত্রে আঙ্গুলের ছাপের মেশিন চালু করেছিল। কিন্তু তাতে প্রয়সই সমস্যা দেখা দিত, হঠাৎ হঠাৎ মেশিন খারাপ হয়ে যেত।
বেশীরভাগ কর্মীরই ‌অভিযোগ ছিল বিশেষ কিছু লোকের হাত মেশিনের ওপর‌ দিলেই মেশিন খারাপ হয়ে যাচ্ছে।
এই সব সমস্যার জন্য ইদানিং এই‌ব্যবস্থা প্রায় অচল, কেউ ওই মেশিনে হাজিরা দেয় আবার কেউ ‌দেয় না, যদিও এই হাজিরার ফলে বেতনে কোনও কাটছাট হয় না।
তবে সম্প্রতি নবান্ন থেকে সাফ জানানো হয় যে আর কোনও রেয়াত হবে না। ওয়াকিবহাল ‌মহলের‌ মত যে হাজিরার বিষয়টি কে স্বচ্ছ করতেই এই ব্যবস্থা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!