এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মীদের জন্য করা নির্দেশিকা জারি নবান্নের

অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মীদের জন্য করা নির্দেশিকা জারি নবান্নের

সরকারি চাকরি পাওয়ার পাশাপশি কিছু কিছু সরকারি কর্মীদের মাথা গোজার জন্য রাজ্য সরকারের তরফ থেকে দেওয়া হয় আবাসনের থাকার ছাড়পত্র। কিন্তু দেখা যাচ্ছে সরকারি চাকরি থেকে অবসর পাওয়ার পরও বেশি কিছু আবাসনের ফ্ল্যাট ভর্তি হয়ে রয়েছে অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মীতে। এরফলে সমস্যা তৈরি হচ্ছে। নতুন সরকারি কর্মীদের অনুপাতে ফ্ল্যাট সংখ্যা কম পড়ে যাচ্ছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এই সমস্যা এড়াতে এবার পাকাপাকিভাবে সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। কড়া নির্দেশিকা জারি হল যে অবিলম্বে আবাসনগুলো খালি করে দিতে হবে। আর এবার কোনো সময়ের মেয়াদ দিতেও চাইছে না নগরোন্নয়ন দফতর। কারণ আগে বহুবার ফ্ল্যাট খালি করার ফতোয়া জারি করলেও বিষয়টির গুরুত্ব দেননি অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মীরা। তাই এবার কড়া সতর্ক বার্তা জারি করে তাঁদের জানিয়ে দেওয়া হল যে দ্রুতই যদি তাঁরা আবাসন খালি না করে তাহলে তাঁদের ওই স্থান থেকে তুলে দেওয়ার আইনি প্রক্রিয়াও শুরু করবে রাজ্য সরকার। এ প্রসঙ্গে নগরোন্নয়ন দফতরের এক আধিকারিকের বক্তব্য পাওয়া গেছে। তিনি জানিয়েছে যে, যারা বর্তমানের সরকারি কর্মী তাঁরা পর্যাপ্ত ফ্ল্যাট পাচ্ছেন না। জায়গাগুলো ৫-৬ বছর ধরে জাকিয়ে বসে আসে অবসর পাওয়া কর্মীরা। অভিযোগে তিনি আরো জানান যে, এমন অনেকেও ফ্ল্যাট দখল করেও রেখেছে যারা কোনোদিন সরকারি চাকরি করেনইনি।

জানা গেছে, ইতিমধ্যে বৈশাখী,বিচিত্রা, বনশ্রী, শ্রাবণী,ফাল্গুনী সহ মোট ২৫০ টি আবাসন খালি করার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। সরকারের নেওয়া এই কড়া পদক্ষেপে মাথায় হাত পড়েছে এতোদিন ধরে ওই সব আবাসনে বসত করা সরকারি অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের। আশ্রয়ের জন্য তাঁদের এবার খুঁজতে হবে নতুন বাসা। তাঁদের অনিশ্চিত ভবিষ্যত থিতু হবে কিনা সে উওর আগামীর কাছে তোলা রইল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!