এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে জোর প্রস্তুতি শুরু করল বিজেপি, জেনে নিন

পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে জোর প্রস্তুতি শুরু করল বিজেপি, জেনে নিন

লোকসভা নির্বাচনের উত্তরবঙ্গে বিজেপি অত্যন্ত ভাল ফলাফল করেছিল। তবে তার পরবর্তীকালে কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন ইস্যুর কারণে উত্তরবঙ্গে বিজেপির সমর্থন কিছুটা হলেও কমেছে। কিন্তু বঙ্গ বিজেপির টার্গেট আগামী 2021 এর বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার মসনদ দখল করা। আর সেদিক থেকে লোকসভা নির্বাচনে তাদের সাফল্য পাইয়ে দেওয়া উত্তরবঙ্গে দলকে সাফল্য পাওয়াতে পৌরসভা নির্বাচনকে এখন পাখির চোখ করেছে গেরুয়া শিবির।

বস্তুত, শিলিগুড়ি পৌরসভার বর্তমানে বামেরা ক্ষমতায় রয়েছে। তাই এই পৌরসভার ক্ষমতা যাতে নিজেদের দখলে আনা যায়, তার জন্য ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। প্রার্থী বাছাই থেকে ওয়ার্ড ভিত্তিক রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করতে শুরু করেছে তারা। যেক্ষেত্রে বিজেপি স্থানীয় নেতৃত্বকে সাহায্য করছে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। জানা গেছে, নিচুতলা থেকে ভালো ব্যক্তিদের নাম নিয়ে এসে তাদের প্রার্থী করার ওপর জোর দিচ্ছে বিজেপি। সেদিক থেকে স্বচ্ছ ভাবমূর্তির লোকেদের প্রার্থী করে এই পৌরসভার ক্ষমতা দখল করতে চাইছে তারা।পাশাপাশি বাম এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ইস্যুকে কাজে লাগিয়েও প্রচার করছেন বিজেপি নেতারা।

প্রসঙ্গত, 47 আসনবিশিষ্ট শিলিগুড়ি পৌরসভায় বর্তমানে বিজেপির মোটে দুইজন কাউন্সিলর রয়েছে। কিন্তু বর্তমানে বিজেপির সাংগঠনিক বহর অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। পাশাপাশি জনসমর্থন অনেকটাই বেড়েছে। তাই সেগুলোকে কাজে লাগিয়ে এখন দুই থেকে নিজেদের সদস্যসংখ্যা অনেকটাই বাড়াতে তৎপর হয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব। কিছু যেখানে বামেদের মত শক্ত সংগঠন রয়েছে, সেখানে বিজেপি কি বামেদের সরিয়ে এই পৌরসভার ক্ষমতা দখল করতে পারবে!

এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপির এক নেতা বলেন, “এখন এলাকার রাজনৈতিক সমীকরণ একেবারেই আলাদা। বাম ও কংগ্রেসের দেউলিয়া রাজনীতি মানুষ দেখেছে। ওদের আর কিছু দেওয়ার নেই। শহরের একটি সমস্যার সমাধান করতে পারেননি। তৃণমূল ক্ষমতায় থাকার স্বার্থে তোষণের রাজনীতি করতে ব্যস্ত। বিজেপিই মানুষকে বিকল্প দিতে পারে।” আর যেভাবে প্রার্থী তালিকা তৈরি করা থেকে শুরু করে সাংগঠনিক শ্রীবৃদ্ধি ঘটাতে শুরু করেছে বিজেপি, তাতে শিলিগুড়ি পৌরসভা দখল করা তাদের কাছে অত্যন্ত টার্গেট মূলক কাজ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকেরা।

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর আরও সহজে হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের যে কোনও এক্সক্লুসিভ সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপে। ক্লিক করুন এখানে – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউবফেসবুক পেজ

যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এখানে

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে শিলিগুড়ি সাংগঠনিক জেলা বিজেপি সভাপতি প্রবীণ আগরওয়াল বলেন, “প্রার্থী বাছাই নিয়ে এখনও কিছু হয়নি। দল পরিচালনার জন্য পিকের মত আমাদের গোয়েন্দা লাগানোর দরকার নেই। আমাদের দলের নেতৃত্ব এই ব্যাপারে যথেষ্ট পারদর্শী। আপাতত পৌরসভা ভোট নিয়ে আমাদের গ্রাউন্ড লেভেলে কাজ চলছে। প্রতিটি ওয়ার্ড ধরে ধরে এলাকার পরিস্থিতি আমরা বিশ্লেষণ করছি।”

কিন্তু অসমর্থিত সূত্রে খবর, কোনো সমীক্ষক দলকে বিজেপির তরফ থেকে দ্বায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কোথায় কোন পুরসভায় এগিয়ে রয়েছে বিজেপি,শুধু তাই নয় সেই সব পুরসভা এলাকায় কোন বিজেপি নেতাকে বেশি কাকে চাইছেন মানুষ সেই নিয়ে সমীক্ষা চালাবার জন্য। আর সেই সব রিপোর্ট পেলেই প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করবে বিজেপি। যদিও এই নিয়ে বিজেপি নেতৃত্ব মুখে কুলুপ এঁটেছেন।তাদের দাবি এমন কিছু হচ্ছে না।তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিজেপির বড় নেতাদের দাবি উপনির্বাচনে ভরাডুবির পর নতুন করে সব কিছু গুছিয়েই মাঠে নামতে চাইছে বিজেপি। যে কারণেই অতি গোপনে এই কাজ করা হচ্ছে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, তৃণমূলের শ্রীবৃদ্ধি ঘটানোর জন্য যেমন প্রশান্ত কিশোরের টিম ইতিমধ্যেই ময়দানে নেমে পড়েছে, ঠিক তেমনই বিজেপিকে সাফল্য পাওয়াতে তাদের টিম ময়দানে নেমেছে। তবে শেষ পর্যন্ত দুই রাজনৈতিক দলের অভ্যন্তরীণ এই টিমের রণকৌশলে কারা বাজিমাত করে! সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -
ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!