এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > বকেয়া হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ে এবার কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার ভাবনাচিন্তায় পুরকর্তৃপক্ষ

বকেয়া হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ে এবার কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার ভাবনাচিন্তায় পুরকর্তৃপক্ষ

বছরের পর বছর হোল্ডিং ট্যাক্সের লক্ষাধিক টাকা বাকি পরে থাকায় যথেষ্ট সমস্যায় পড়তে হচ্ছে হলদিয়া পুরসভাকে।চলতি বছরেও প্রাপ্ত হোল্ডিং ট্যাক্সের পরিমান হলো প্রায় এক কোটি যার মধ্যে মাত্র আদায় করা গিয়েছে তার এক চতুর্থাংশ।এর ফলে উন্নয়ন ও পুর পরিষেবার ক্ষেত্রে যথেষ্ট সমস্যায় পড়তে হচ্ছে কর্তৃপক্ষদের।তাই ট্যাক্স আদায়ের জন্য নির্দিষ্ট পদক্ষেপ নেওয়ার দিকে এগোচ্ছে পুরসভা।
পুরসভার চেয়ারম্যান শ্যামলকুমার আদক বলেন, ডোমেস্টিক হোল্ডিং ট্যাক্স হিসাবে বছরে তাদের পাওয়ার কথা ৯৬ লক্ষ টাকা,কিন্তু বর্তমানে তা দাঁড়িয়েছে ২৭-২৮ লক্ষ টাকায়।তার দাবি অনেক বাসিন্দা এবং চাকুরীজীবি মানুষ আর্থিক ভাবে সচ্ছল হওয়া সত্ত্বেও ট্যাক্স মেটানোর দিকে তাদের উদাসীনতা চোখে পরে।তার উপর অনেকেই ১১ বছরের ন্যূনতম হোল্ডিং ট্যাক্সই এখনো পর্যন্ত মেটায় নি।আবার একাংশের দাবি পুরোনো সমস্ত বকেয়া মকুব করে দেবার।এই ধরণের মানসিকতা এবং অনীহার জন্য একদিকে যেমন  সমস্যায় পড়েছে নগরের অন্যান্য বাসিন্দারা তেমনি অন্যদিকে নাগরিক পরিষেবা বা উন্নয়ন কোনো টাই ঠিক করে পৌঁছে দিতে পারছেনা পুরসভা।পাশাপাশি তিনি হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ের জন্য পুর কর্মচারীদের আরও তৎপর হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। প্রয়োজনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই বিষয়ে জানানোর কথাও তিনি বলেছেন।পুরসভার চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিলের সদস্য নারায়ণচন্দ্র প্রামাণিক বলেন, অনেকদিন ধরে বাকি থাকা  ডোমেস্টিক হোল্ডিং ট্যাক্সকে মেটানোর জন্য পুরসভার পক্ষ থেকে কিছু ডিসকাউন্ট দেওয়া হবে।যদি তাতেও কোনো ফল না পাওয়া যায় তাহলে জলের লাইন বিচ্ছিন্ন করা অথবা বিদ্যুতের সংযোগ কেটে দেওয়ার মতো কড়া পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবেন তারা।
আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!