এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > মুকুল রায়ের একুশের চ্যালেঞ্জ দেড় লাখে ফিরিয়ে দিলেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা

মুকুল রায়ের একুশের চ্যালেঞ্জ দেড় লাখে ফিরিয়ে দিলেন হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা


একদা শাসকদলের একুশে জুলাইয়ের মঞ্চ মানেই দলের অঘোষিত দুনম্বর নেতা মুকুল রায়ের উজ্জ্বল উপস্থিতি ছিল বাঁধা। কিন্তু গতবছর থেকেই হয়েছে ছন্দপতন – গতবছর সভামঞ্চে স্থান পেলেও তা ছিল এক কোনে। আর এবছর তো তিনি শিবিরই বদলে ফেলেছেন – ঘাসফুল ছেড়ে পদ্মফুল শিবিরে নাম লিখিয়েছেন।

তাই ধর্মতলায় যখন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দ্বর্থ্যহীন ভাষায় নরেন্দ্র মোদী সহ কেন্দ্র সরকারকে একের পর এক তোপ দেগে যাচ্ছেন, তখন বালুরঘাটের বুকে দাঁড়িয়ে সভা করে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েছিলেন মুকুল রায়। বালুরঘাটের বুকে বিশাল সভা করে দাবি করেছিলেন – মানুষ এখন আর তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে নেই, ক্ষমতা থাকলে এমন ভিড়ে ঠাসা জনসভা করে দেখাক!

চ্যালেঞ্জটা নিয়েছিলেন দক্ষিণ দিনাজপুর তৃণমূল জেলা

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে।

সভাপতি বিপ্লব মিত্র। মুকুল রায়ের পাল্টা সভা করতে তিনি গতকাল হাজির করিয়েছিলেন তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য সহ একঝাঁক শাসকদলের শীর্ষনেতাকে – বালুরঘাটের বুকে। আর সেই সভাতে উপচে পড়েছিল ভিড়। তৃণমূলের হিসাবে সংখ্যাটা দেড় লাখেরও বেশি।

আর সেই সভা থেকেই কার্যত হুঙ্কার ছাড়লেন বিপ্লব মিত্র। তিনি বলেন, দেখিয়ে দিলাম তৃণমূলের সঙ্গে লোক আছে কি না। এরপর নিশ্চয় আর চ্যালেঞ্জ করতে আসবেন না বিজেপি নেতারা। এর পরের জবাবটা লোকসভায় পাবে বিজেপি। গতকালের সভা থেকে দলনেত্রীর দেখানো পথেই বিজেপিকে তীব্র আক্রমন করেন শাসকদলের নেতারা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!