এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > প্রতারণা মামলায় গ্রেফতারি এড়াতে আজ দিল্লিতে বড় পদক্ষেপ মুকুল রায়ের – জানুন বিস্তারিত

প্রতারণা মামলায় গ্রেফতারি এড়াতে আজ দিল্লিতে বড় পদক্ষেপ মুকুল রায়ের – জানুন বিস্তারিত

পুলিশের পক্ষ থেকে একাধিকবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু তিনি হাজির হননি। পরবর্তীতে আদালতের পক্ষ থেকে থানায় হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হলেও তা পালন করেননি তিনি। আর একের পর এক নির্দেশ অমান্য করায় অবশেষে সোমবার বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করল ব্যাঙ্কশাল আদালত। কিন্তু ঠিক কী কারণে এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হল বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে!

বস্তুত, প্রায় এক বছর আগে এক রেলকর্মীর কাছ থেকে হিসেবে বহির্ভূত 80 লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হলে তার তদন্তের জন্য বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে ডেকেছিলেন তদন্তকারীরা। কিন্তু সেখানে মুকুল রায় হাজির না হওয়ায় এবার তার বিরুদ্ধে এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হল।

এদিন এই প্রসঙ্গে এই মামলার বিশেষ সরকারি আইনজীবী তরুণ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “পুলিশের আবেদনের ভিত্তিতে ব্যাঙ্কশাল আদালতের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট মনোদীপ দাশগুপ্ত বড়বাজার থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন যে, 29 আগস্টের মধ্যে মুকুল রায়কে আদালতে হাজির করাতে হবে।”

এদিকে গত জানুয়ারি থেকে তিন তিন বার তাকে ডেকে পাঠানো হলেও তিনি না আসায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে বলে জানিয়েছে লালবাজার। তবে ঝানু রাজনীতিবিদ মুকুল রায় কি বসে থাকার পাত্র! তিনিও পাল্টা তার কৌশল শুরু করে দিয়েছেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

জানা গেছে, এই প্রতারণার মামলায় গ্রেফতারি এড়াতে আজ মঙ্গলবার দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হচ্ছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। এদিন এই প্রসঙ্গে মুকুল রায়ের কলকাতার আইনজীবী শুভাশীষ দাশগুপ্ত এবং দিল্লির আইনজীবী কবিরশংকর বসু বলেন, “কলকাতা পুলিশ ব্যাঙ্কশাল আদালতে আবেদন করায় আমাদের মক্কেল মুকুল রায় দিল্লি হাইকোর্টে পাল্টা মামলা করে জানিয়েছিলেন যে, তিনি যেহেতু দিল্লিতে থাকেন তাই বড়বাজার থানার পুলিশ যেন দিল্লিতে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তারা সব রকম সহযোগিতা করবেন। কিন্তু কলকাতার পুলিশ এসব মেনে নেয়নি। সম্প্রতি আমরা দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন তুলে নিয়ে নতুন করে আবেদন করেছি। আর তার মধ্যেই ব্যাঙ্কশাল আদালত এই নির্দেশ দিয়েছে।”

এদিকে প্রায় 7 দিন আগে কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে নিয়ে দিল্লিতে গিয়ে তদন্ত করার ব্যাপারে জানানো হলেও এইদিন এই প্রসঙ্গে মুকুল রায়ের দিল্লীর আইনজীবী কবীরশঙ্কর বসু বলেন, “আমাদের এই ব্যাপারে কোন আপত্তি নেই। কিন্তু সবার আগে আমার মক্কেলের নামে ব্যাঙ্কশাল কোর্ট থেকে মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। কারন কোনো মামলায় দুদিক থেকে কাউকে বিপদে ফেলা যায় না।”

সব মিলিয়ে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়ার সাথে সাথেই সময় নষ্ট না করে পাল্টা দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ বঙ্গ বিজেপির এই হেভিওয়েট নেতা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!