এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > ধর্মতলা থেকে ‘ছোটোখাটো’ বিস্ফোরণ মুকুল রায়ের, বাকি পার্ট টু, পার্ট থ্রী!

ধর্মতলা থেকে ‘ছোটোখাটো’ বিস্ফোরণ মুকুল রায়ের, বাকি পার্ট টু, পার্ট থ্রী!

রানী রাসমণি স্ট্রিটের সভাস্থল থেকে ছোটোখাটো বিস্ফোরণ ঘটালেন মুকুল রায়। তিনি যা বললেন,

১. বিশ্ব বাংলা কোনও সরকারি সংস্থা নয়। এটি একটি কম্পানি, এর মালিকের নাম অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।
২. সালটা বদলে গিয়েছে, কিন্তু ঘটনা বলদায়নি, বদলেছে শুধু মানুষ। মানুষ মারা যাচ্ছে, আগে নন্দনে সিনেমা দেখতেন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, আর এখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নাচা গানায় ব্যস্ত আছেন।
৩. তৃণমূল বলে জাগো বাংলা নাকি তাদের মুখপত্র। জাগো বাংলা একটি কম্পানি এর মালিকের নাম অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।
৪. নাকতলা উদয় সঙ্ঘের পুজোয় চিটফান্ড কম্পানি। ক্লাবের সভাপতি পার্থ চট্টোপাধ্যায়।
৫. মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন শিক্ষায় দলতন্ত্র চলবে না। কিন্তু এখন তিনিই সব শিক্ষাক্ষেত্রে দলতন্ত্র চালাচ্ছেন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাথায় অযোগ্য লোককে বসিয়ে দিয়েছেন।
৬. সুদীপ্ত সেনের সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিক মিটিং করেছেন। সুদীপ্ত সেন ৮৪০ কোটি টাকা পর্যটন ও মিডিয়ার পিছনে খরচ করেছেন, এর জবাব কে দেবে?
৭. যে সব প্রতিশ্রুতি দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় এসেছিলেন তার একটাও পূরণ করেননি।
৮. ২০২১ এ পরিবর্তনের পরিবর্তন হবে
৯. এখন চোখের জল ফেলার সময় নয়, চোখ থেকে আগুন বের করার সময়

১০. আজ শুধু একটু বললাম, এখনো অনেক কিছুর বলার আছে, অপেক্ষা করুন পার্ট টু, পার্ট থ্রী আসছে

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!