এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > রানিগঞ্জের ঘটনার পিছনে আসলে কে? চাঞ্চল্যকর দাবি মুকুল রায়ের

রানিগঞ্জের ঘটনার পিছনে আসলে কে? চাঞ্চল্যকর দাবি মুকুল রায়ের

মুখ্যমন্ত্রীর রাজনৈতিক কর্মসূচী নিয়ে দিল্লী সফরকে তীর্যক মন্তব্যে বিঁধলেন প্রাক্তন তৃণমূল শীর্ষ নেতা ও বর্তমানে বিজেপির অভিজ্ঞ নেতা মুকুল রায়। আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন উপলক্ষ্যে দলীয় কর্মীদের বার্তা দিতেই পশ্চিমবঙ্গে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। বাংলায় সফর কালে শিলিগুড়িতে সভা করার পরিকল্পনা রয়েছে অমিত শাহের। সেই সভার প্রস্তুতি পর্ব খতিয়ে দেখতে এদিন শিলিগুড়িতে দিয়ে সেখানকার জেলার আধিকারিকদের সাথে বৈঠক করলেন মুকুল রায়।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

আর বৈঠকের শেষে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বললেন, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সুপ্ত বাসনা রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। আর সেজন্যে বারবার দিল্লি ছুটে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক করুন রাহুল গান্ধি ওর নেতা, না উনি রাহুলের নেতা। তারপর তৃতীয় বিকল্প। এরপরে পশ্চিম বর্ধমানের রানিগঞ্জে দুই বিরোধীপক্ষের হিংসার ঘটনার প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী কে অভিযুক্ত ঠাহর করে মুকুল বাবু বললেন, রানিগঞ্জের ঘটনায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রীই দায়ি। উনিই বাংলায় আজকের এই হিংসা আমদানি করলেন। উনি হঠাৎ করে এরই মধ্যে ঢুকে বাংলায় অশান্ত পরিবেশ তৈরি করলেন। রানিগঞ্জ কাণ্ডের সম্পূর্ণ দায় এইভাবে মুখ্যমন্ত্রীর দিকে ঠেলে দিয়ে রাজনৈতিক বিতর্ক বাড়িয়ে দিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় সে কথা বলায় বাহুল্য। তবে মুকুলবাবুর এহেন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে এখনো কোনো সরকারি প্রতিক্রিয়া মুখ্যমন্ত্রী বা শাসকদলের কাছ থেকে পাওয়া যায় নি।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!