এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুকুল রায়কে আটকাতে নয়া পন্থা শাসকদলের,অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের

মুকুল রায়কে আটকাতে নয়া পন্থা শাসকদলের,অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের

মুকুল রায়কে আটকাতে নয়া পন্থা শাসকদলের, অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের। মুকুল রায়ের উপর এখন বিজেপি পঞ্চায়েত-ভোটের পুরো দ্বায়িত্ব দিয়েছে। ফলে মুকুলবাবুও ঝাঁপিয়েছেন পঞ্চায়েতে ভালো ফল করতে। আর তাই নানা জায়গায় সভা করতে ব্যাস্ত মুকুল রায়। এবার সভাস্থলে ঢোকার রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। জানা গেছে জলপাইগুড়ির ঘুঘুডাঙায় মুকুলবাবুর সভা করার কথা আছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

আর সেখানে সেই মতো প্যান্ডেল করতে যান বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। অভিযোগ উঠেছে যে তৃণমূলের কর্মীরা বাঁশ দিয়ে আটকে সভাস্থলে ঢোকার মুখটি বন্ধ করে রেখেছে। এই নিয়ে বিজেপির যুব মোর্চার জেলা সভাপতি শ্যাম প্রসাদ জানান যে, সদর মহকুমাশাসক, পুলিশ সবার অনুমতি নিয়েই মুকুল রায়ের সভাস্থল ঠিক করা হয়েছিল।কিন্তু আজ দেখি হঠাৎ তৃণমূলের ঝান্ডা লাগিয়ে সভাস্থলের রাস্তাটি বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড করে বন্ধ করে দিয়েছে তৃণমূল। বিষয়টি আমরা মহকুমাশাসক, মানিকগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশকে জানিয়েছি। কিন্তু তাতেও কাজ হয়নি। রাস্তা খোলা হয়নি। তিনি এরপর জোর দিয়ে বলেন যে সভা হবেই পুলিশ প্রশাসনকেও তা জানানো হয়েছে। এদিকে তৃণমূলের তরফ থেকে সমস্ত ঘটনা অস্বীকার করা হয়েছে। তৃণমূলের দাবি যে সভায় কেউই আসবে না জেনে বিজেপির সভা বন্ধ করার এটা একটা চাল। নিজেরাই এই কাজ করেছে আর আমাদের নাম বদনাম করছে। প্রসঙ্গত, বিজেপির সভা আটকানোর অভিযোগ এর আগেও উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এখন দেখার সব প্রতিকূলতা কাটিয়ে বিজেপি সভা করতে পারে কিনা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!