এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে তৃণমূল নেত্রীর “মেয়ে” “হাঁড়ির খবর ফাঁসে” কি নতুন অস্বস্তি বাড়বে শাসকদলে?

মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে তৃণমূল নেত্রীর “মেয়ে” “হাঁড়ির খবর ফাঁসে” কি নতুন অস্বস্তি বাড়বে শাসকদলে?

Priyo Bandhu Media


রাজ্য রাজনীতিতে একদা তৃণমূল নেত্রীর ছায়াসঙ্গী হিসেবেই পরিচিত মুকুল রায় বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই রাজ্যের শাসকদলে তীব্র ভাঙ্গন ধরবে বলে জল্পনা ছড়াতে শুরু করে। কিন্তু মুকুলবাবু বিজেপিতে যোগদানের পর প্রায় এক বছর পেরিয়ে গেলেও তেমন কোনো রাজ্যের হেভিওয়েট শাসকদলের নেতা-নেত্রীকে বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নিতে দেখা যায়নি।

তবে বঙ্গের রাজনীতির চাণক্য হিসেবে পরিচিত মুকুল রায়ের রাজনৈতিক গ্যাম প্লানিংটা একটু আলাদা। শুধু কথায় নয়, কাজেও যে তিনি করে দেখান তা সম্প্রতি তৃণমূল সাংসদ সৌমিত্র খাঁকে বিজেপিতে যোগদান করিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড় তুলে দিয়েছিলেন তিনি।

আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই মুকুল অনুগামীদের অনেকেই দাবি করেন যে, লোকসভা নির্বাচনের আগে এরকম আরও অনেক চমক রয়েছে। এমনকি স্বয়ং মুকুল রায়ের গলা থেকেও এইরকম কথা শোনা যায়। দীর্ঘদিন ধরেই মুকুল রায় বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই একদা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ আইপিএস অফিসার হিসেবে পরিচিত জঙ্গলমহলের দায়িত্বে থাকা প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ ফেরার হিসেবে চিহ্নিত হওয়ায় তীব্র শোরগোল পড়ে গিয়েছিল রাজ্যে।

ভারতী ঘোষের সাথে রাজ্য সরকারের সম্পর্কের তিক্ততার মাঝে জল্পনা ছড়ায় যে সেই ভারতী দেবী এবার বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন। কিন্তু জল্পনা সেই জল্পনাতেই রয়ে যায়। তবে গতকাল সেই সমস্ত জল্পনাকে উড়িয়ে দিয়ে অবশেষে রাজ্যের শাসকদলের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ বিজেপিতে যোগ দিলেন।

আর ভারতী দেবী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই রাজ্যের রাজনৈতিক অন্দর মহলে তীব্র আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। কেননা একসময় শাসকের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বৃত্তে থাকা এই ভারতী ঘোষ জঙ্গলমহলের সমস্ত ঘটনা জানতেন। জঙ্গলমহলের মাও নেতা কিষেনজীর মৃত্যু থেকে নানা ঘটনার সাক্ষী ছিলেন তিনি।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

ফলে এহেন ভারতী ঘোষ লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজার আগেই বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় তৃণমূলের অস্বস্তি অনেকটাই বাড়তে চলেছে বলে দাবি গেরুয়া শিবিরের।

একাংশের মতে, লোকসভা নির্বাচনের আগেই রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে অনেক অস্বস্তিকর কথা প্রকাশ্যে এনে তৃণমূলের ঘুম উড়িয়ে দেবেন ভারতী দেবী। আর যার প্রভাব পড়বে সরাসরি ভোটব্যাংকে। আর এতেই অনেকটাই লাভবান হতে পারে গেরুয়া শিবির। তবে তৃণমূল অবশ্য সমালোচকদের এহেন দাবি মানতে নারাজ।

শাসক দলের দাবি, আগামী লোকসভা নির্বাচনে পদ্ম ফোঁটা তো দূর অস্ত, পদ্মের কুঁড়িটুকুও ফুটবে না। আর সেই ক্ষেত্রে এই ভারতী ঘোষ কোনো ফ্যাক্টর হিসেবে কাজই করবে না। তবে যে যাই বলুন না কেন! ভারতী ঘোষ বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় আদৌ কতটা রাজ্যের শাসক দল অস্বস্তিতে পড়বে! আর কতটাই বা লাভবান হবে বিজেপি! তা দেখা যাবে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ভোটবাক্স খোলার পরই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!