এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মুকুল কন্যা জয় পেতেই উওর-পূর্বেও বড়সড় ধাক্কা লাগলো গেরুয়া শিবিরে

মুকুল কন্যা জয় পেতেই উওর-পূর্বেও বড়সড় ধাক্কা লাগলো গেরুয়া শিবিরে

পদ্মশিবির কিছুতেই সংখ্যাগরিষ্ঠতার দৌড়ে বাকি রাজনৈতিক দলগুলোকে ছাপিয়ে যেতে পারছে না। তার ফলে ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের আগেই বেশ ঝটকা লাগছে বিজেপির। এর প্রমাণ দিয়ে গেলো উওর পূর্বের পাহাড় রাজ্য মেঘালয়ের আমপাটি উপনির্বাচনের ফলাফল। কংগ্রেস একাই দৌড়ে বুঝিয়ে দিল তাঁর দাপট। কীভাবে কী হল জানতে চোখ রাখুন নীচের খবরে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

সম্প্রতি ফেব্রুয়ারিতে মেঘালয়ে বিধানসভা নির্বাচন হয়েছিলো। তার ফলাফল প্রকাশ্যে আসায় দেখা গেলো হাতপার্টি জয় পেয়েছে ২১ টি আসনে। এর ভিতর ২ টি আসনে (আমপাটি এবং সোংসা) একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বসে আছেন কংগ্রেসের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মুকুল সাংমা। কিন্তু নিয়ম বলছে  একই ব্যক্তি দুটি আসন ধরে রাখতে পারবেন না। তাই কার্যত মুকুল বাবু সোংসাকে রেখে ৫ বারের বিজিত আসন আমপাটিকে ছেড়ে দিলেন। ফলত, স্বাভাবিকভাবেই কংগ্রেসের আসন সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছিলো ২০। অন্যদিকে বিধানসভায় সংখ্যা গরিষ্ঠতা পেতে কংগ্রেসের দরকার ছিল আরো ১১ টি আসন। তাই এনপিপি( ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টি)  ভোটে ১৯ টি আসন পেলেও বিজেপিকে সাথে নিয়ে খুব দ্রুততার সঙ্গে বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করে কনরাড সাংমার নেতৃত্বে সরকার গড়েছিলো। এই জোট সরকারে এনপিপি ১৯ জন বিধায়ক ছাড়াও আছে ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক পার্টির ৬ জন, পিপলস্ ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের ৪ জন, এইচএসপিডিপি এবং বিজেপির তরফের ২ জন এবং আরো ১ জন নির্দল বিধায়ক। ফলে  জোট সরকারের বিধায়ক সংখ্যা হয় ৩৫ জন। সরকার গড়তে দরকার ছিল ৩১ টি আসন। সেই সংখ্যাকে তাঁরা ছাপিয়ে গেলো অতিরিক্ত ৪ টি আসন নিয়ে।

তবে মুকুল বাবু আমপাটি আসনটি ছেড়ে দেওয়ায় নিয়মমতো ওই আসনে আবার উপনির্বাচন হয়। ওই আসনটিতে দাঁড়িয়েছিলেন কংগ্রসে প্রার্থী মুকুল তনয়া মিয়ানি ডি শিরা। এদিন ফলাফল প্রকাশিত হল উপনির্বাচনের। তাতে দেখা গেলো মুকুল কন্যার জয় হয়েছে। এই জয়ের ফলে মেঘালয়ের বিধানসভায় কংগ্রেসের আসন সংখ্যা ফের আগের জায়গায় চলে গেলো। অর্থাৎ ২০ থেকে বেড়ে হল ২১। ফলে জোট সরকারের বিপ্রতীপে কংগ্রেস দাঁড়ালো একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসাবে। অন্যদিক, বিজেপির হাত ধরে মেঘালয়ে জোট সরকার চালাচ্ছে  এনপিপির নেতৃত্বে যে পাঁচটি দল, সেখানে ৬০ সদস্যের বিধানসভায় ৫ টি জোটের বিধায়কই ৩৫ জন। তার ভিতর এনপিপির বিধায়কই রয়েছে ২০ জন। এই খতিয়ানে বোঝাই যাচ্ছে বিজেপির অবস্থান কোথায় রয়েছে বর্তমানে। কংগ্রেস পুরোটা না হলে খানিক ভীত নড়িয়েই দিয়েছে গেরুয়া পার্টির। তাই নিয়ে আপাতত বিজেপিশিবিরে বেশ গুঞ্জনের আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!