এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মুখ্যমন্ত্রীর পুত্রের বন্দুক হাতে ছবি ঘিরে বড়সড় বিতর্ক, অস্বস্তি গেরুয়া শিবিরে

মুখ্যমন্ত্রীর পুত্রের বন্দুক হাতে ছবি ঘিরে বড়সড় বিতর্ক, অস্বস্তি গেরুয়া শিবিরে

বন্দুকের চল সাধারণত বিহার বা উত্তরপ্রদেশেই বেশী। সেখানে দেখা যায়, যে কোন অনুষ্ঠানে সেখানকার নেতা থেকে শুরু করে বর্ধিষ্ণু পরিবারের প্রায় প্রত্যেকেই বন্দুক ব্যবহার করেন। তাদের কাছে বন্দুকটা হচ্ছে শ্রেষ্ঠত্বের চিহ্ন। যদিও এ নিয়ে বিতর্ক প্রচুর আছে। এবার বিতর্ক উসকে দিয়ে দুর্গা পূজোতে বিহার বা উত্তর প্রদেশের নেতাদের নকল করে ত্রিপুরায় রাইফেল হাতে সেখানকার মুখ্যমন্ত্রীর ছেলের ছবি নিয়ে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে। অনেকেই বলছেন, ত্রিপুরার সংস্কৃতি এ ধরনের ঘটনাকে সমর্থন করে না।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে ত্রিপুরার একটি দুর্গা মণ্ডপে সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এর ছেলে আরিয়ান দেব একটি স্বয়ংক্রিয় রাইফেল হাতে দাঁড়িয়ে আছেন। ছবিটিকে ঘিরে ত্রিপুরায় তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। শুধু যে রাইফেল হাতে ছবিটি আছে তা নয়, পুজো প্রাঙ্গণে পায়ে জুতো পড়ে একেবারে প্রতিমার সামনে চলে গেছেন মুখ‍্যমন্ত্রীর ছেলে। এবং সেখানে দাঁড়িয়ে ছবি তুলেছেন। মন্দির প্রাঙ্গণে সাধারণত জুতো পরে যাওয়া যায়না বলেই সবাই জানি।

অনেকের বক্তব্য, এই ছবি সম্পূর্ণ পুজো সংস্কৃতির বিরোধী। এ বিষয়ে প্রদেশ কংগ্রেসের পক্ষে সুবল ভৌমিক দাবি করেছেন, মুখ্যমন্ত্রীর ছেলের হাতে রাইফেল কেন? এ বিষয়ে তদন্ত হওয়া উচিত এখনি। এই কথার প্রতিবাদ জানিয়ে ত্রিপুরার বিজেপি রাজ্য মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্য্য পাল্টা প্রশ্ন করেছেন, সুবল বাবুর রুচিবোধ নিয়ে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত, সুবল ভৌমিক সম্প্রতি বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। কংগ্রেসে যোগ দিয়েই লোকসভা ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ছাড়পত্র পেলেও সুবল ভৌমিককে এখনো পর্যন্ত কোন রাজনৈতিক পদ দেয়নি কংগ্রেস।

তবে বিজেপি মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্য্য দাবি করেছেন, মুখ্যমন্ত্রীর ছেলের হাতে কি করে রাইফেল এল এ বিষয়ে যদি পুলিশ তদন্ত করে, তাহলে তাতে আপত্তি থাকার কোন কারণই নেই। ঘটনাটি উল্লেখ করে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ত্রিপুরার এক বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব জানান, যে রাইফেলটি নিয়ে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর ছেলে আরিয়ান দেব ছবিটি তুলেছেন, সেটি ত্রিপুরা স্টেট রাইফেলস এর একে 50 রাইফেল।

সমগ্র ঘটনাটি নিয়ে ত্রিপুরায় তুমুল উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। বিতর্ক ধামাচাপা দিতে তৎপর হয়েছে বিজেপি। তবে এখনও পর্যন্ত পুলিশের তরফ থেকে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। এবং ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর কোন বক্তব্য পেশ হয়নি। বিজেপি তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে, শুধুমাত্র ছবি তোলার জন্যই রাইফেলটি ব্যবহার করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে নজর রেখেছে ত্রিপুরার রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!