এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > নিজের সাংসদ এলাকাতেই বিশিষ্টজনদের ডেকে ‘মুখোমুখি’ হতে পারলেন না বাবুল সুপ্রিয়!

নিজের সাংসদ এলাকাতেই বিশিষ্টজনদের ডেকে ‘মুখোমুখি’ হতে পারলেন না বাবুল সুপ্রিয়!

বেশ কিছুদিন আগে রাজ্যে এসে বুদ্ধিজীবিদের নিয়ে একটি বৈঠক করেছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। কিন্তু সেই বৈঠক কার্যত  বিফল হয়েছিল হয়েছিল। এবার আসানসোলে নিজের কেন্দ্রে সল বুদ্ধিজীবিদের নিয়ে একটি আলোচনা সভায় বসার কথা থাকলেও সেই সভায় হাতে গোনা পাঁচ থেকে ছজনের উপস্থিতি লজ্জায় ফেলে দিল বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে।

সূত্রের খবর, সাংসদ হিসাবে নিজের চার বছরের কাজের খতিয়ান মানুষের কাছে তুলে ধরতে আসানসোলের একটি ক্লাবে “মুখোমুখি বসা যাক সাংসদের সাথে” নামে একটি আলোচনা সভায় যোগ দেওয়ার কথা ছিল বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র। জানা গেছে, সাংসদ হওয়ার পর ইএসআই হাসপাতালের উন্নয়ন, কুমারগ্রামে রেল ব্রিজের শিলান্যাস সহ বেশ কিছু প্রকল্পের সম্পর্কে মানুষকে জানানোর পাশাপাশি তৃনমূল যে কাজে বাধা দিচ্ছে তাও এই আলোচনা সভায় সকলের সামনে তুলে ধরতে চেয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। কিন্তু আলোচনা করবে কারা? যাঁদের সাথে আলোচনা অনুষ্টান শুরু আগে শনিবার সন্ধ্যায় সেই মানুষদের সংখ্যা দাড়ায় মোটে চার থেকে পাঁচ জন। ফলে বাধ্য হয়ে বাতিল করতে হয় এই অনুষ্টান। কিন্তু সাংসদের মুখোমুখি হওয়ৃর সুযোগ পেয়েও  কম সংখ্যক মানুষ কেন আসলেন?

এই প্রসঙ্গে শহরের এক বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবি বলেন, “প্রত্যেকেরই সম্মান আছে। হোয়াটসঅ্যাপে আমন্ত্রন পত্র পাঠিয়ে দায় সাড়া হয়েছে। এমনকী কী কারনে এই আমন্ত্রন তাও জানানো হয়নি।” অন্যদিকে এই অনুষ্টান পন্ড হওয়ার পেছনে তৃনমূলের ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত পাচ্ছে জেলা বিজেপি। এই প্রসঙ্গে এদিন জেলা বিজেপির সভাপতি লক্ষ্মন ঘোড়ুই বলেন, “তৃনমূলের হুমকিতেই অনেকে এখানে আসতে পারেননি।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পাশাপাশি আমন্ত্রন জানানোতে ত্রুটির কথাও স্বীকার করে নিয়েছে বিজেপি। অন্যদিকে এই ব্যাপারে তৃনমূলকে দায়ী করায় বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগে পশ্চিম বর্ধমান জেলার তৃনমূলের সভাপতি ভি শিবদাসন দাশু বলেন, “যে ব্যাক্তি সরকারি অনুষ্টানের মঞ্চ থেকে পা ভেঙে দেওয়ার কথা বলে তার সভায় কেউই যাবে না। আসলে আসানসোলের মানুষ ওর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন।” সব মিলিয়ে এবার নিজের কেন্দ্রে মানুষের মুখোমুখি হতে চাইলেও লোকসভা ভোটের আগে সেই বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়র থেকে মুখ ফেরাল আসানসোলের মানুষ।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!