এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মাওবাদীদের আর্থিক মদত আটকাতে রাজ্যজুড়ে চাপ বাড়িয়ে চিরুনি তল্লাশি শুরু এনআইএর

মাওবাদীদের আর্থিক মদত আটকাতে রাজ্যজুড়ে চাপ বাড়িয়ে চিরুনি তল্লাশি শুরু এনআইএর

অনেকদিন ধরেই খবর আসছিল তাদের কাছে। এবার অবশেষে পদক্ষেপ গ্রহন করল তারা। এবার মাওবাদীদের আর্থিক সাহায্যের অভিযোগে গতকাল দিনভর তল্লাশি চালাল ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি অর্থ্যাৎ এনআইএ। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মাওবাদীদের কাছে ঠিক কোন কোন ব্যাক্তি অর্থ পাঠিয়ে সাহায্য করছে সেই ব্যাপারে সঠিক রহস্য উদঘাটনের জন্য এই বছরের জুন মাসে এনআইএর তরফ থেকে একটি মামলা রুজু হয়। যেখানে দেখা যায় যে, বিভিন্ন ব্যাক্তির কাছ থেকে ফোন যাচ্ছে বিহার ও ঝাড়খন্ডের টাকা দাবি করে। আর এই টাকা মাওবাদীদের পাঠাতে সাহায্য করছেন কজন ব্যাবসায়ী। কিন্তু কোথায় বাড়ি এই ব্যাবসায়ীদের?

জানা গেছে, দুর্গাপুর, জামশেদপুর, হাজারিবাগের কজন ব্যাবসায়ী এই কান্ডে যুক্ত থাকতে পারে। আর তাই মঙ্গলবার এক দুর্গাপুরের শিল্পপতির বাড়িতে তল্লাশি চালাল এই এনআইএ। কেন্দ্রীয় নিরাপত্তারক্ষীদের সাথে নিয়ে এদিন ওই শিল্পপতির বিধাননগরের বাড়িতে ঢোকেন এনআইএ কর্তারা। গোটা বাড়ি ঘিরে ফেলেন সিআরপিএফ কর্তারা। এদিকে বাড়িতে এনআইএ তল্লাশি চালালে আইনি পরামর্শ নেওয়ায় জন্য সেই শিল্পপতির স্ত্রী তাদের আইনজীবি সুজিত রায়কে ফোন করে ডাকলে তিনি আসলেও তাঁকে সেখানে ঢুকতেই দেননি সিআরপিএফরা। কিন্তু হঠাৎ এই শিল্পপতির বাড়িতে কেন তল্লাশি চালাল এনআই।

সূত্রের খবর, 45 বছরের এই শিল্পপতির 32 টি কারখানা রয়েছে। প্রথমে ধানবাদে তিনি কয়লার ব্যাবসা করতেন। পরে রাজ্যে এসে বিগত বাম সরকারের আমলে দুর্গাপুরে একটি স্পঞ্জ আয়রন কারখানা চালুর পাশাপাশি বিভিন্ন জায়গায় কারখানা কিনতে শুরু করেন। বরাকরে পুরোনো বাড়ি থাকা সত্তেও বিধাননগরে একটি বড় ফ্ল্যাট করার পাশাপাশি কোলকাতাতেও একটি বাড়ি করেন এই শিল্পপতি। ঝাড়খন্ডের সরকারের অনেক মন্ত্রীর সাথে সুসম্পর্ক থাকায় সবসময়ই নিরাপত্তাবলয়ের মধ্যে থাকতেন এই শিল্পপতি।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

পাশাপাশি, আসানসোল, দুর্গাপুরের অনেক হেভিওয়েটরাও তার কারখানায় অর্থসাহায্য করেছেন। ফলে এদিন শিল্পপতির বাড়িতে এনআইএ তল্লাশি চালানোয় চাপে পড়েছেন সেই প্রভাবশালীরাও। এদিকে এই শিল্পপতি সুদেও টাকা খাটাতেন। অডি এবং বিএমডব্লু গাড়িতেই চড়েন তিনি। আর এদিন সেই দাপুটে শিল্পপতির বাড়িতে এনআইএ তল্লাশি চলায় শুরু হয়েছে তীব্র গুঞ্জন। এদিকে এই শিল্পপতির বাড়িতে তল্লাশি করা ছাড়াও আরও 14 টি জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে নগদ 68 লক্ষ টাকা, 86 হাজার বাতিল নোটের পাশাপাশি কিছু ডলার উদ্ধার করা হয়েছে।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!