এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > কৃষ্ণনগর তুমি কার? মহুয়া মৈত্র ও কল্যাণ চৌবের পাল্লা দিয়ে প্রচারে ক্রমশ জমে উঠছে ভোটযুদ্ধ

কৃষ্ণনগর তুমি কার? মহুয়া মৈত্র ও কল্যাণ চৌবের পাল্লা দিয়ে প্রচারে ক্রমশ জমে উঠছে ভোটযুদ্ধ

তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্র বনাম বিজেপি প্রার্থী কল্যাণ চৌবের লড়াইয়ে বর্তমানে সরগরম কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের রাজনীতি। সূত্রের খবর, একদিকে যখন কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্র কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভায় জোর প্রচার চালাচ্ছেন, ঠিক তখনই এদিন কৃষ্ণনগরের দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায় নিজের প্রচার সারলেন এখানকারই বিজেপি প্রার্থী কল্যান চৌবে। জানা গেছে, এদিন মহুয়া মৈত্র কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভার যাত্রাপুর বাজার থেকে নিজের প্রচার শুরু করে সমরপল্লী, দোগাছি, চিত্তশালী, হরিহরনগর সহ বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েতে গিয়ে প্রতিটি গ্রামের মানুষদের সাথে জনসংযোগ করেন।

এদিকে তৃণমূল প্রার্থীকে দেখবার জন্য এদিন রাস্তার ধারে মহিলাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। গ্রামের মহিলারাই এদিন তৃনমূল প্রার্থীকে বরণ করে নেন বলে দাবি ঘাসফুল শিবিরের। এদিন মহুয়া মৈত্রর সাথে ছিলেন কৃষ্ণনগর পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান তথা কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের অন্যতম পর্যবেক্ষক অসীম সাহা। এদিকে এখানকার প্রচার শেষ করে কৃষ্ণনগর পৌরসভার সভাঘরে একটি দলীয় কর্মী সভায় যোগ দেন তৃণমূল প্রার্থী। কিন্তু প্রচারে কেমন সাড়া পাচ্ছেন তিনি? এদিন এই প্রসঙ্গে কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্র বলেন, “দোগাছি গ্রাম পঞ্চায়েতের 32 টি বুথে প্রচার করেছি। খুব ভালো সাড়া পেয়েছি। মানুষের আশীর্বাদ পেলে তাদের জন্য কাজ করব।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

এদিকে গোটা কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভায় যখন জোর প্রচার চালাচ্ছেন তৃণমূল প্রার্থী, ঠিক তখনই সেখানে পিছিয়ে নেই বিজেপিও। এদিন সকাল সকাল কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী কল্যান চৌবে কৃষ্ণনগর দক্ষিণ পূর্ব বিধানসভার মুড়াগাছার দোগাছি পঞ্চায়েতে হুডখোলা গাড়িতে চড়ে নিজের প্রচার শুরু করেন। জানা গেছে, এদিন নাকাশিপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রের পাটিকাবাড়ি, ধর্মদা, মুড়াগাছা, বীরপুর ১ ও ২ নম্বর এবং বেথুয়াডহরি ২ নম্বর পঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকায় প্রচার সারেন কল্যান চৌবে। এদিন বিজেপি প্রার্থীর সাথে এই প্রচারে দেখা গেছে নদীয়া উত্তরের বিজেপির জেলা সভাপতি মহাদেব সরকারকেও।

কেমন সাড়া পাওয়া যাচ্ছে গেরুয়া শিবিরের প্রচারে? এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতৃত্বের বক্তব্য, “আজকের প্রচার কার্যত মিছিলে পরিণত হয়েছে। প্রায় এক হাজার লোক এদিনের প্রচারে আমাদের দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে ছিলেন। বিভিন্ন এলাকায় আমরা মানুষের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। আগামী দিনে নাকাশিপাড়া থেকে আমাদের প্রার্থীকে আমরা ব্যাপক ভোটে এগিয়ে রাখব।” একই কথা শোনা গেছে বিজেপির জেলা নেতৃত্বের গলাতেও। এমনিতেই কৃষ্ণনগরে বিজেপির জনভিত্তি প্রতিটি নির্বাচনেই দেখা গেছে, তার উপরে এবারে নাকি প্রবল গেরুয়া হাওয়া চলছে গোটা বাংলা জুড়ে বলে দাবি বিজেপি নেতৃত্বের। সব মিলিয়ে এবার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্র দখলে একে অপরকে টেক্কা দিয়ে জোর প্রচারে ব্যস্ত তৃণমূল এবং বিজেপি প্রার্থী। তবে শেষ পর্যন্ত কে শেষ হাসি হাসে তা দেখবার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে আগামী ২৩ শে মে পর্যন্ত।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!