এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদির শাহের দুরুত্ত্ব বাড়লো কি ? নরেন্দ্র মোদিকে কটু কথা বলা নেতাই এখন উত্তরপ্রদেশের দায়িত্বে

মোদির শাহের দুরুত্ত্ব বাড়লো কি ? নরেন্দ্র মোদিকে কটু কথা বলা নেতাই এখন উত্তরপ্রদেশের দায়িত্বে

Priyo Bandhu Media


গুজরাটের তত্‍কালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যাকে এককালে মন্ত্রিসভা থেকে ছেঁটে ফেলেছিলেন। শুধু তাই নয়, বিধানসভার টিকিট না পাবার আশঙ্কা নিয়ে বিজেপি ছেড়ে নিজের দল গড়ে বিধানসভা নির্বাচনে লড়েছিলেন ও প্রচারের সময় মোদির বিরুদ্ধে অনেক কটূকথাও বলেছিলেন সেই বিতর্কিত গোর্ধন ঝাড়াফিয়াকেই নতুনভাবে দলে ফেরালো বিজেপি। উত্তরপ্রদেশে বিজেপির দায়িত্ব পেলেন তিনি।আর দায়িত্ব দিলেন খোদ দলের সভাপতি অমিত শাহ।

যদিও জানা যাচ্ছে যে, ২০০৭ সালে নতুন দল গড়লেও, নির্বাচনে সাফল্য পাননি তিনি। তারপর ২০১২ সালেও আর এক মোদি বিরোধী কেশুভাই প্যাটেলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নির্বাচনে লড়েছিলেন কিন্তু সেখানেও পরাজিত হয়েছিলেন আর এরপর ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের বিজেপিতে ফিরে আসেন এই গোর্ধন ঝাড়াফিয়া। শুধু ফিরে আসাই নয় ২০১৭ সালের গুজরাট বিধানসভা ভোটে বিজেপির হয়ে প্রচার করেন গোর্ধন। আর এবার তার হাতেই উত্তরপ্রদেশের লোকসভার দায়িত্ব দেওয়া হলো।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর এই নিয়েই বিরোধিরা প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে তবে কি মোদী শাহ এর মধ্যে তিন রাজ্যের হার নিয়ে মন কষাকষি শুরু হয়েছে। বিজেপির অন্দরের খবর এমন কিছু নয়। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতা প্রবীন তোগাড়িয়ার অন্যতম ঘনিষ্ট গোর্ধন দায়িত্ববান নেতা তাই তাঁকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাহলে মোদি তাঁকে মন্ত্রিসভা থেকে ছেঁটে ফেলেছিলেন ফল কেন? এই প্রশ্নের উত্তর কিন্তু পাওয়া যাই নি। যাই হোক নতুন দ্বায়িত্ব পেয়ে ২০১৯ এ কেমন ফল উপহার দিতে পারেন গোর্ধন সেটাই এখন দেখার।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!