এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > স্বস্তি পেলেন মোদী- শাহ, দীর্ঘ আলোচনার জট কাটিয়ে পাশে পেলেন জোটসঙ্গীকে

স্বস্তি পেলেন মোদী- শাহ, দীর্ঘ আলোচনার জট কাটিয়ে পাশে পেলেন জোটসঙ্গীকে

অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলল বিজেপি। দীর্ঘ চাপানউতোর এর পরে ধরা দিল জেডি(ইউ)। জোট ধর্ম পালন করতে গিয়ে কার্যত জেডি(ইউ) বিজেপির কাছে নিজেদের বিকিয়ে দিল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। বেশ কয়েক সপ্তাহ ঠান্ডা লড়াই চলার পর বিজেপির সাথে চূড়ান্ত আসন রফা করে নিলেন নিতিশ কুমার।যদিও বিহারের মুখ্যমন্ত্রী শেষ পর্যন্ত সম্মানজনক আসনে নিজের লড়াইয়ের দাবি জারি রাখতে পেরেছেন।বিহারের মোট 40 টি আসনের মধ্যে জেডি(ইউ) লড়বে ১৬ টি আসনে ১৭ আসনে লড়বে বিজেপি আর বাকি ৭ টি আসনে লড়বে জোটসঙ্গী সহযোগী দলগুলি।

দু’পক্ষের দীর্ঘ ঠান্ডা লড়াইয়ের পর ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের জন্য নীতীশ কুমারের সঙ্গে অমিত শাহ আসনের চূড়ান্ত রক্ষা করলেন। সূত্রের খবর, সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহের দিল্লিতে মোদি অমিত শাহের সঙ্গে হওয়া এক বৈঠকে আসন নিয়ে চূড়ান্ত রফা করেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। জানা গেছে, বিহারের মোট ৪০ টি আসনের মধ্যে ১৬ টি তে লড়বে নীতিশের দল জেডি(ইউ) ১৭টিতে লড়বে বিজেপি রামবিলাস পাসোয়ানের দল লড়াই করবে ৫টি আসনে আর বাকি দুটি আসনে লড়বে উপেন্দ্র কুশওয়াহার দল।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

২০১৫ সালের মহাজোটের সূত্র কে অনুসরন করেই এই সমঝোতা করা হয়েছে। সেবার বিধানসভা নির্বাচনে ১২২ টি আসন থাকা সত্ত্বেও ১০১ টি আসনে লড়াই করেছিল নীতীশ । লালুর দল পেয়েছিল মাত্র ২২ টি আসন। অন্যদিকে কংগ্রেসে পেয়েছিল ৪৩ টি আসন । ১৯৯৬ সালের পর দীর্ঘ ২২ বছর পরে নীতিশের দলের সাথে জোট করে লড়াইয়ে নামছে বিজেপি। ২০ টিরও কম মাত্র ১৭ টি আসনে লড়াই নামছে তারা। মোদি-শাহ-এর সাথে নীতিশের এই গাঁটছড়া বাঁধা কতটা সফলতা আনে এবার তাই দেখার।

Top
error: Content is protected !!