এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মহা বিপাকে মোদী শাহ,পুরানো শরিকের শর্তে বড় চিন্তায় দেশের শাসকদল

মহা বিপাকে মোদী শাহ,পুরানো শরিকের শর্তে বড় চিন্তায় দেশের শাসকদল

সম্প্রতি অযোধ্যায় অবিলম্বে রামমন্দির নির্মানের পক্ষে সওয়াল তুলেছিলেন সরসঙ্ঘচালক মোহন ভাগবত। এবার আইনের পথে হেঁটে রামমন্দির তৈরির দাবী করলেন বিজেপির পুরানো শরিক দল শিবসেনাও। রাম মন্দির তৈরি নিয়ে বিতর্ক বহুদিনের। দীর্ঘদিন ধরেই এই ইস্যু নিয়ে মামলা চলেছে আদালতে। নরেন্দ্র মোদী ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দেশের ক্ষমতায় এলে সবার আগে অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরি করবেন। কিন্তু তৈরি করা তো দূর, এখনো অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরি করার নিয়ে কোনো উদ্যোগই দেখাতে পারলেন না তিনি,অথচ তাঁর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ৪ বছর কেটে গিয়েছে। আরো একটা লোকসভা ভোট দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে। মোদীর এই দ্বিচারী আচরণের ক্ষুব্ধ বিজেপির শরিক দলই। দিন তিনেক আগেই এই ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ শানিয়ে শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে বলেছিলেন,’তিনি বিদেশে যেতে পারেন,কিন্তু অযোধ্যায় যেতে পারেন না।’

এবার শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত অযোধ্যার রাম মন্দির নির্মাণ নিয়ে দলের অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন সামনার সম্পাদকীয়তে। জানালেন রাম মন্দির তৈরি করতে হলে আইন তৈরি ছাড়া করা যাবে না। জানালেন,’এটা রাজনৈতিক ইচ্ছার ব্যাপার।’ এটা নরেন্দ্র মোদী পারবেন বলেও মত প্রকাশ করেছেন তিনি। এবং এটাও জানান,এই মুহূর্তে সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়েও যদি বিজেপি রাম মন্দির নির্মানের আইন তৈরি করতে না পারেন তাহলে বুঝে নিতে হবে মোদী সরকারের এ ব্যাপারে সদিচ্ছার অভাব রয়েছে।

অযোধ্যার রাম মন্দির তৈরি নিয়ে সম্প্রতি আপত্তি জানিয়েছেন হায়দ্রাবাদের সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। এআইএমআইএম- এর প্রধানের মন্তব্যের সমালোচনা করে সঞ্জয় রাউত বলেছিলেন, আসাদুদ্দিনের উচিৎ হায়দ্রাবাদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকা। সঙ্গে রাম মন্দিরের বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে কড়া উপদেশও দিয়েছিলেন তিনি। বলেছিলেন,রামমন্দির হায়দরাবাদ, ‘পাকিস্তান কিংবা ইরানে তৈরি হবে না, তৈরি হবে অযোধ্যায়। বলেছেন সঞ্জয় রাউত।’

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো  করুন এই লিঙ্কেখবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

 

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক

দীর্ঘদিন ধরেই বিজেপির সঙ্গে শিবসেনার সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে যাচ্ছে না। ছোটোখাটো ব্যাপার নিয়েই মন কষাকষি চলছে দু দলের মধ্যে৷ ফলত ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে পুরানো শরিক দল শিবসেনা বিজেপির হাত ধরবে কিনা সেটা নিয়েও এখনো কোনো নিশ্চয়তা নেই। এ ব্যাপারে অনিশ্চয়তা প্রকাশ করে তিনি জানালেন,’যতক্ষণ সংসদে গরিষ্ঠতা রয়েছে, মন্দির তৈরি করতে তার সাহায্য নেওয়া উচিত।’ যেহেতু রাম মন্দির নির্মানের বিষয়টি সম্পূর্ণই মানুষের আস্থার উপর দাঁড়িয়ে রয়েছে,তাই আদালত এ ব্যাপারে তেমন কিছু করতে পারবে না বলেই মত প্রকাশ করেছেন তিনি। তবে রাম মন্দির নির্মান কর্মসূচি নিয়ে লোকসভা ভোটের আগে মোদী সরকার সদর্থক পদক্ষেপ না নিলে শরিক দলকে হারাবে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!