এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদীর সভার খরচ শুনলে চোখ কপালে উঠবে! কেন, কিভাবে হল এত খরচ?

মোদীর সভার খরচ শুনলে চোখ কপালে উঠবে! কেন, কিভাবে হল এত খরচ?

লোকসভা ভোটের আগে বাংলাই যেন এখন পাখির চোখ বিজেপি নেতাদের। আর তাই তো এরাজ্যে অবাধ যাতায়াত করতে শুরু করেছেন অমিত শাহ থেকে নরেন্দ্র মোদীর মত হেভিওয়েট বিজেপি নেতারা। গত 16 ই জুলাই মেদিনীপুরের মাঠে সভা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার জন্য ছিল এলাহি আয়োজনও। দর্শকদের বসার আসন থেকে মূল মঞ্চ ও পাশেই আর একটি মঞ্চ, জায়েন্ট স্কিন থেকে শুরু করে বিভিন্ন জেলার মানুষকে সভাস্থলে আনার খরচ সমস্ত কিছুই বহন করতে হয়েছিল রাজ্য বিজেপিকে। আর সেই সভা শেষের পর হিসেব কষে যা দেখা গেল তাতে চোখ কপালে ওঠার জোগার। জানা গেছে, নরেন্দ্র মোদীর এই সভার পেছনে রচ হয়েছে দু কোটি টাকা

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

এ প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি এসব ব্যাপারে খোঁজ ঠিকমত রাখেন না বললেও শেষে তিনি বলেন, “দেড় কোটির মত খরচ হতে পারে।” এ তো গেল বিজেপির অন্দরমহলের খবর! জেলা প্রশাসনের থেকে পাওয়া সূত্র অনুযায়ী জানা যায় যে এই মাঠের আয়তন 2 লক্ষ 10 হাজার বর্গফুট হলেও দর্শকাসনের মাথার ওপরে তিনটি ছাউনিবিশিষ্ট যে প্যান্ডেল টাঙানো হয়েছিল তারই পরিমান ছিল 1 লক্ষ 23 হাজার বর্গফুট। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর মঞ্চের পেছনেও খরচ হয়েছে বড় অঙ্কের অর্থ।

কিছু কারনে এবং এসপিজির আপত্তিতে পুনরায় কিছু বদল করতে রবিবার ফের ডেকোরেটার্সের পক্ষ থেকে এই কাজে হাত লাগালে তাতে বাজেট বহুগুনে বেড়ে যায়। সাথে সাথে ভিন রাজ্য থেকে লোক আনার ক্ষেত্রে বাসের খরচ, মেদিনীপুর শহর জুড়ে দলের বড় মাপের কাটআউট, পতাকা, সভাস্থলে আসা কর্মী ও সমর্থক ও মানুষদের জন্য দু লক্ষ পাউচ জল ও চার লক্ষ প্যাকেটের বিস্কুটের পেছনেও বিপুল অর্থ খরচ হয়েছে।

অন্যদিকে প্যান্ডেল ভেঙে পড়ায় সেই আহতদের খরচ বহন কথা, হোটেল, গেষ্টহাউস সব মিলিয়ে নরেন্দ্র মোদীর সফরে এত বিপুল অর্থ খরচ নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই। তবে শুধু এবার নয়, সম্প্রতি পঞ্চায়েত ভোটের সময় নিহত দলীয় কর্মীদের পাঁচ থেকে সাত লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে বিজেপির তরফ থেকে। সাথে সাথে তো সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আইনি লড়াইয়ে প্রতিনিয়ত বিপুল অর্থ বেরিয়ে যাচ্ছে রাজ্য বিজেপির কোষাগার থেকে।

রাজনৈতিক মহলের মতে, সামনের লোকসভায় বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে ভরাডুবির ভয়ে এখন বাংলাকে টার্গেট করেছেন বিজেপি নেতারা। আর তাই তো অর্থের জন্য কাজ যাতে আটকে না যায় তার কারনে কেন্দ্রীয় বিজেপি রাজ্যের কাছে সফরকম সাহায্য পাঠাচ্ছে। সব মিলিয়ে কোটি টাকা খরচ হলেও এরাজ্যে নিজেদের সংগঠনকে শক্তিশালী করে আগামী লোকসভায় 42 টির মধ্যে কম করে 24 টি আসন নিজেদের দখলে রাখতে মরিয়া গেরুয়া শিবিরের নেতারা। আর তাতে অর্থ যে বাধা হবে না সেব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিন্ত রাজ্য বিজেপিও।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!