এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদী নন, ২০১৯ এ মমতা ব্যানার্জীর মূল প্রতিপক্ষ হতে চলেছেন সোনিয়া গান্ধী?

মোদী নন, ২০১৯ এ মমতা ব্যানার্জীর মূল প্রতিপক্ষ হতে চলেছেন সোনিয়া গান্ধী?

বিজেপিকে হারাতে তৃতীয় ফ্রন্ট গড়তে চাইছে তৃণমূল ও কংগ্রেস দু-দলই। এদিকে মমতা বন্দোপাধ্যায় তার শীর্ষে বসতে চাইছেন আর অন্যদিকে সোনিয়া গান্ধী। আর তাই লড়াইটা মোদী ছাড় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে সোনিয়া গান্ধীর বলেই মনে করছে রাজনৈতিকমহল। এদিন আবার তৃতীয় ফ্রন্ট গড়ার দিকে আরো একধাপ এগোলেন সোনিয়া গান্ধী। সোনিয়াগাঁধী নিজ আসন ছেড়ে উঠে গিয়ে কথা বললেন বিজু জনতা দলের নেতা ভর্তৃহরি মহতাবের সাথে। বিজু জনতা দল যদিও কংগ্রেস বা বিজেপি কোনো দলেরই শরিক নয়, কিন্তু বিজেপির খারাপ সময় অনেকবারই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে দেখা গেছে এই দলকে। জানা গেছে ত্রিপুরা নির্বাচনের ফলাফলের পর অ-কংগ্রেসি ও অ-বিজেপি জোট গঠনের গন্ধ পেয়ে মুখমন্ত্রী সাততাড়াতাড়ি কথা বললেন টিয়ার্স নেতা কে চন্দ্রশেখর রায় এবং ডিএমকের এস কে স্ট্যালিনের সাথে। জানা গেছে উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেস বিরোধী জোট গঠন করতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন সোনিয়া ইউপিএর শরিক দল সহ টিডিপি ও বিজেডির বিজেপি শরিকদের নৈশ ভোজের আমন্মত্রন জানান। মূলত আঞ্চলিক শরিক দলগুলিকে দলে টানার জন্যই এই পন্থা তিনি বেছেছেন, এমনটাই কংগ্রেস সূত্রের খবর। জানা গেছে রাহুল গাঁধীও সক্রিয় হয়ে উঠেছেন। ”২০১৯ সালে ক্ষমতায় আসার পরে প্রথম কাজই হবে অন্ধ্রকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া। সকলকে একজোট হতে হবে।” টিডিপি দলের দাবিকে এদিন সমর্থন জানিয়ে এমনটাই বলেন রাহুল গাঁধী। সূত্রের খবর উত্তর প্রদেশের ১০ম আসনটি যাতে না বিজেপির ঝুলিতে যায় তার চেষ্টায় কংগ্রেস হাত মেলাতে চলেছে সপা- বোসপার সাথে। ”সমর্থন করতেই হবে কংগ্রেসকে। তারা কি বিজেপিকে ভোট দেবে?” এদিন এমনটাই মন্তব্য করেন সপার নরেশ অগ্রবাল। সূত্রের খবর সময় হলে বিজেপির বিরুদ্ধে বিরোধী দলও একজোট হবে বলে আশা রাখে কংগ্রেস।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!