এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > মোদি মমতা সাক্ষাৎ থেকে রাজীব কুমার – অকপট মুকুল রায়, জানুন বিস্তারিত

মোদি মমতা সাক্ষাৎ থেকে রাজীব কুমার – অকপট মুকুল রায়, জানুন বিস্তারিত

বরাবরই এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর চূড়ান্ত বিরোধিতা করে এসেছেন এবং এখনো করে যাচ্ছেন। সম্প্রতি এনআরসি মামলায় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে রাজপথে নেমে চূড়ান্ত বিরোধিতা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এনআরসি থেকে শুরু করে কাশ্মীর ইস্যু অথবা চন্দ্রযান 2 অভিযান – সবেতেই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তীব্র বিষোদগার করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর সাথে মুখ্যমন্ত্রীর সাক্ষাৎকার নিয়ে রাজনৈতিক মহলে তীব্র কটাক্ষ সৃষ্টি হবে সেটাই স্বাভাবিক।

আর এই সাক্ষাৎকার নিয়ে এবার মুখ খুলেছেন, বিজেপি সদস্য মুকুল রায়। মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র কটাক্ষ সহযোগে অভিযোগের আঙুল তুলে তিনি বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের উন্নয়ন নিয়ে কথা বলতে চলেছেন। অথচ প্রধানমন্ত্রী যখন নীতি আয়োগের বৈঠক ডাকেন, সেই সময় তিনি যান না। এমনকি, যখন প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সাথে প্রধানমন্ত্রী বৈঠক করেন, সে সময়েও মুখ্যমন্ত্রীকে সেখানে দেখতে পাওয়া যায় না। তাই তাঁর এই হঠাৎ যাওয়াটা সন্দেহের মধ্যেই পড়বে স্বাভাবিক।

প্রধানমন্ত্রীর সাথে মুখ্যমন্ত্রীর সাক্ষাৎকার নিয়ে বিরোধী দল চূড়ান্ত দাবি জানিয়ে আসছে, এই সময় মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি যাওয়ার অর্থ, রাজীব কুমারকে সিবিআই এর হাত থেকে বাঁচানোই একমাত্র উদ্দেশ্য। উল্লেখ্য, রাজীব কুমারকে গত কয়েকদিন ধরে সিবিআই খুঁজে যাচ্ছে কিন্তু রাজীব কুমার পুরোপুরি বেপাত্তা। সিবিআই এর তরফ থেকে যেকোনো মুহূর্তে রাজীব কুমার গ্রেফতার হয়ে যেতে পারেন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।


আপনার মতামত জানান -

তবে বিজেপি নেতা মুকুল রায় কিঞ্চিৎ সাবধানী হয়ে জানিয়েছেন, ফেডারেল স্ট্রাকচার অনুযায়ী কোন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে যেতেই পারেন। কি কারণে তিনি দেখা করতে যাচ্ছেন সে বিষয়ে বিজেপি দলের পক্ষে বলা সম্ভব নয়।

এদিন মুকুল রায় সারদা তদন্ত নিয়ে জানিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশেই সিবিআই সারদা তদন্তে নেমেছে। তাই সিবিআইকে যথাযোগ্য সহযোগিতা করা উচিত। এ বিষয়ে তিনি পূর্বে সারদা মামলায় সোমেন মিত্র ও রবিন দেবকে সিবিআই কর্তৃক হাজিরার উদাহরণ দিয়েছেন।তবে মুকুল রায় রাজীব কুমার অন্তর্ধান রহস্য একটু উস্কে দিয়ে একথাও বলেছেন যে, প্রধানমন্ত্রীর সাথে মুখ্যমন্ত্রীর কি বিষয়ে কথা হবে তা হয়তো জানা নেই। কিন্তু রাজ্যের প্রতিটি জনগণের মনে অন্য সন্দেহ উঁকি মারবেই সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের দাবি, প্রধানমন্ত্রীর সাথে মুখ্যমন্ত্রীর সাক্ষাতে কি আলোচনা হবে তা এই মুহূর্তে হয়তো জানা সম্ভব নয়। কিন্তু এই সাক্ষাৎকারের ফলে ভবিষ্যতে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে যে অন্য মাত্রা যোগ হতে চলেছে, তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। আর সেদিকেই নজর সমগ্র রাজনৈতিক মহলের।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!