এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদিকে আক্রমন করতে গিয়ে, বিজেপি এখনো পর্যন্ত টাকা ছড়িয়ে ভোট করছে না মেনে নিলেন মমতা?

মোদিকে আক্রমন করতে গিয়ে, বিজেপি এখনো পর্যন্ত টাকা ছড়িয়ে ভোট করছে না মেনে নিলেন মমতা?

এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের স্লোগান – এটা ২০১৯, ৪২ এ ৪২, বিজেপি ফিনিশ! অন্যদিকে বিজেপির দাবি, রাজ্যে চলছে প্রবল গেরুয়া ঝড় – আর তাই ২৩ শে মে ইভিএম খুললে দেখা যাবে বিজেপির ঝুলিতে অন্তত ২২-২৩ টি আসন গেছে – আর তারপরেই নাকি যে পরিমান ভাঙন দেখা যাবে তৃণমূলে, তাতে রাজ্য সরকারই পড়ে যাবে সময়ের অনেক আগেই! কার দাবি সঠিক – তা জানার জন্য ২৩ শে মে পর্যন্ত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই রাজ্যবাসীর। কিন্তু, এরই মাঝে তৃণমূল নেত্রী থেকে শুরু করে সামগ্রিকভাবে তৃণমূল নেতৃত্ব যেভাবে আক্রমন শানাচ্ছেন – তাতে স্পষ্ট বাংলায় বাম বা কংগ্রেস নয়, মূল প্রতিপক্ষের নাম বিজেপিই।

আর এর বড় কারণ বোধহয় বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচন। যেখানে গত বিধানসভার প্রধান বিরোধী কংগ্রেস বা প্রাপ্ত ভোট শতাংশের হিসাবে প্রধান বিরোধী বামফ্রন্টকে কয়েক যোজন পিছনে ফেলে প্রধান বিরোধী জায়গাটা – তা সে আসন সংখ্যায় হোক বা প্রাপ্ত ভোট – ছিনিয়ে নিয়েছিল বিজেপি। যদিও, বিজেপির সেই উত্থানকে বিশেষ গুরুত্ত্ব দিতে চায় নি তৃণমূল কংগ্রেস। ঘাসফুল শিবিরের স্পষ্ট অভিযোগ ছিল, টাকা ছড়িয়ে আর বাইরের রাজ্য থেকে লোক ঢুকিয়ে বিজেপি কিছু আসনে জিতেছে! আর, তাই এবারের লোকসভা নির্বাচনেও একই পদ্ধতিতে ভোট করাতে পারে গেরুয়া শিবির বলে আগেই আশঙ্কা করেছিল তৃণমূল নেতৃত্ব।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

প্রিয় বন্ধু মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরের নোটিফিকেশন আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের ব্রাউসারে সাথে সাথে পেতে, উপরের পপ-আপে অথবা নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

আপনার মতামত জানান -

কিন্তু, রাজ্যের পাঁচদফা নির্বাচন হয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত বিজেপি যে ওই পন্থা গ্রহণ করে নি তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আক্রমন করতে গিয়ে কার্যত ঘুরিয়ে স্বীকার করে নিলেন স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে দাবি করছেন গেরুয়া শিবিরের সমর্থকরা। গতকাল – গোপীবল্লভপুর, বিষ্ণুপুর এবং কোতুলপুরে দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনে তিনটি জনসভা করেন তৃণমূল নেত্রী। সেখান থেকেই তিনি জানান, ‘এক্সপায়ারি প্রধানমন্ত্রী’ ভোটের আগে রাজনীতি করতে এসেছেন। তমলুকে এসে বলছেন, দিদি শুধু রাজনীতি করেন, আর কিছু করেন না! আরে, ‘দিদি’ যা করেন তা আপনি করতে পারেন? বাংলার জন্য একটা কোনও কাজ করেননি। লজ্জা করে না?

এরপরেই তৃণমূল নেত্রী বলেন, বাংলা বলে কথা শোনে, অন্য রাজ্য হলে ঘাড় ধাক্কা দিত মানুষ। পরিষ্কার বলছি, মোদিবাবু শুনুন, এটা পঞ্চায়েত নির্বাচন নয়, পঞ্চায়েতে মিথ্যা কথা বলে টাকা বিলিয়ে ভোট নিয়েছিলেন। এই নির্বাচনে টাকা বিলিয়ে ভোট নিতে গেলে আমরা ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে নজর রাখব। আর তাতে যদি প্রশাসনের কারও যোগ থাকে, তাঁকেও আমরা ছেড়ে কথা বলব না! মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যের এই শেষ অংশ নিয়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় কার্যত ঝড় তুলেছেন গেরুয়া সমর্থকরা। তাঁদের বক্তব্য, পাঁচদফা নির্বাচন হয়ে গেলেও এখনও তৃণমূল নেত্রী বলছেন ‘নজর রাখব’, ‘ছেড়ে কথা বলব না’ – অর্থাৎ সবই ‘ফিউচার টেন্স’! অর্থাৎ ওনার কথাতেই স্পষ্ট যে ২৭ আসনে ভোট হয়ে গেছে – সেখানে এখনও এরকম কিছু উনি খুঁজে পাননি! তাই উনি এইসব নজর রাখতেই থাকুন ২৩ শে মে পর্যন্ত – আর সাধারণ মানুষ ওনার থেকে ‘পরিত্রান পেতে’ স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিয়ে বিজেপিকে জেতাতেই থাকুক! সবমিলিয়ে, জমজমাট ঘাসফুল-পদ্মফুলের বাকযুদ্ধ!

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!