এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > মোদী-যোগীকে সার্টিফিকেট দিয়েও বিতর্কে বিজেপি নেতা

মোদী-যোগীকে সার্টিফিকেট দিয়েও বিতর্কে বিজেপি নেতা

বেফাঁস মন্তব্যের জেরে আবারও সংবাদ শিরোনামে উঠে এলেন এক বিজেপি নেতা। উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের উপ মুখ্যমন্ত্রী পরে রাজ্য রাজনীতিতে হৈচৈ ফেললেন এক বিজেপি সাংসদ। ঘটনার সূত্রপাত রাজ্যের গোন্ডার জনসভায়। সেখানেই মঞ্চে উপস্থিত হয়ে বিজেপি সাংসদ ব্রিজভূষণ শরণ এক বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন। তিনি কথা প্রসঙ্গে রাজনীতিতে বা দলের অন্দরে দুর্নীতি কথা উল্লেখ করে বললেন , ” ”আমি যে কথাটা বলতে চাই, তা মন দিয়ে শুনুন। আমাদের দলে শুধু প্রধানমন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রী (যোগী আদিত্যনাথ) দুর্নীতিগ্রস্ত নন।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

আমি এ কথাটা কিন্তু অন্য কোনও মন্ত্রীদের সম্পর্কে বলছি না।” তাঁর এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে যে রাজ্য রাজনীতি বেশ উত্তপ্ত তা আলাদা করে বলার দাবি রাখেনা। দলের একাংশের দাবি অনুসারে দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর প্রিয়পাত্র হয়ে থাকার জন্যেই সাংসদ ব্রিজভূষণ শরণ প্রকাশ্যে এমন মন্তব্য করেছেন।  কিন্তু কতটা সন্তুষ্ট করতে পারলেন তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে। কেননা মোদী যোগীকে দুর্নীতিগ্রস্ত নন বললেও বাকিদের বলেছেন ফলে প্রধানমন্ত্রী মোদী কে যে চরম বিড়ম্বনায় ফেলেছেন তিনি।
সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশেরই বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিংহ সাধারণ মানুষকে আইন হাতে তুলে নেওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেছিলেন, ”যে সব সরকারি কর্মী ঘুষ নেন, তাঁরা যৌনকর্মীদের চেয়েও খারাপ। যারা ঘুষ নিচ্ছেন, তাঁদের ঘুসি মারুন।” তবে বিজেপি সাংসদ ব্রিজভূষণ শরণ’র মতো এত সরাসরি দলীয় নেতাদের বিরুদ্ধাচরণ কেউ করেননি। রাজনৈতিকমহলের দাবি তিনি, মোদী এবং যোগীকে ক্লিনচিট দিলেন বটে কিন্তু বাকিদের পরোক্ষভাবে দুর্নীতি গ্রস্থ বলে বিজেপি ওরফে মোদির অস্বস্তি বাড়ালেন।

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!