এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > এবার বিতর্কে মোদির ফিটনেস ফান্ডা, ভিডিও ছবি তুলতে মোটা টাকা খরচের অভিযোগ

এবার বিতর্কে মোদির ফিটনেস ফান্ডা, ভিডিও ছবি তুলতে মোটা টাকা খরচের অভিযোগ

ব্যয় বহুল জীবনের জন্যে আবারও বিতর্কে জড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সম্প্রতি গোপণ সূত্র মারফত প্রকাশিত তথ্য অনুসারে জানা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ফিটনেস ভিডিও ও ছবি তুলতে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের খরচ হয়েছে ৩৫ লাখ টাকা। পিএমও-র তরফে সরকারি ভাবে বিষয়টি মানতে অসম্মত হলেও রাজনৈতিক মহলে এই বিষয়টিকে নিয়ে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে। সোস্যাল মিডিয়ায় এই বিষয়টিকে নিয়ে বাক যুদ্ধে সামিল হলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শশী তারুর এবং কেন্দ্রীয় তথ্যসম্প্রচার মন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিংহ রাঠৌর। যদিও প্রাক্তন মন্ত্রীর সমস্ত বক্তব্য নাকচ করে বর্তমান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানালেন এই ভিডিওর জন্য এক টাকাও খরচ করেনি প্রধানমন্ত্রীর দফতর।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

প্রসঙ্গতঃ এদিন শশী তারুর দাবি করেন মোদির ফিটনেসের ভিডিও শুট করতে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের খরচ হয়েছে ৩৫ লাখ টাকা। আর যোগা ডে-র প্রচারে আয়ূষ মন্ত্রক খরচ করেছে ২০ কোটি টাকা। একই সাথে প্রাক্তন মন্ত্রী সরকার বিরোধীতা করে বললেন, ”এই সরকার ভুল তথ্য দিয়ে সত্যকে চাপা দিচ্ছে। সমস্ত আশা শেষ করে দিয়েছে।” এই ট্যুইটের পরেই তাতে প্রচুর রিটুইট, রিঅ্যাক্ট, কমেন্টস শুরু হয়। সকলেই যে প্রাক্তন মন্ত্রীকে সমর্থন করেছেন এমন নয় বহু মানুষ এই ট্যুইটের বিরোধীতা করেও নিজেদের মতামত লেখেন। সমস্ত তর্ক বির্তকের অবসান ঘটাতে খোদ কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এই ট্যুইটের জবাব দিয়ে লেখেন প্রধানমন্ত্রীর ফিটনেস ভিডিওর জন্য এক টাকাও খরচ করা হয়নি। পিএমও-র ভিডিওগ্রাফারই এটা শুট করেছেন। এর জবাব দিতেও কোনো কসুর করেন নি প্রাক্তন মন্ত্রী। তিনি এই উত্তরের জবাবেও লেখেন ”প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও শুটের জন্য এক টাকাও খরচ হয়নি জেনে খুশি হলাম।”

আপনার মতামত জানান -
Top
error: Content is protected !!